ঢাকা শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২০ অপরাহ্ন

ঢাকায় বাইকারদের রাম-রাজত্ব!

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: শনিবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
ফাইল ছবি

রাজধানী ঢাকাতে এখন রীতিমতো মোটরসাইকেলের রমরমা অবস্থা। যে কোনো সড়কেই যেন বাইকচালকদের রাম-রাজত্ব। বিভিন্ন কোম্পানির অসম প্রতিযোগিতার ফলে প্রতিনিয়ত বাড়ছে বাইকারের সংখ্যা। সারাদেশে মোটরসাইকেলের সংখ্যা ২৭ লাখ। এর মধ্যে ঢাকাতেই আছে ৭ লাখ মোটরসাইকেল।

এগুলো বিআরটিএর রেজিস্ট্রেশন পরিসংখ্যানের হিসাব। কিন্তু এর বাইরেও লক্ষাধিক বাইক আছে বলে জানা গেছে। ৫ সেপ্টেম্বর জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের সভায় বিআরটিএ মোটরসাইকেলের এ তথ্য প্রকাশ করে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রাজধানীর জন্য এত মোটরসাইকেল রীতিমতো বড় ঝুঁকি হিসেবে দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে মোটরসাইকেল ব্যবহার করে একশ্রেণির দুর্বৃত্ত বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড সংঘটিত করছে।

চলতি বছর এ পর্যন্ত বিআরটিএ থেকে মোটরসাইকেল নিবন্ধন দেয়া হয়েছে ৬২ হাজার। আর সারা দেশে এ পর্যন্ত নিবন্ধন নেয়া হয়েছে ২ লাখ ৪৯ হাজার ৯৫০টি মোটরসাইকেল।

মোটরসাইকেল এভাবে বাড়ার বিষয়ে বিআরটিএ জানায়, ঢাকায় ২০১৫ সাল থেকে বিআরটিএতে মোটরসাইকেল নিবন্ধন নেয়ার সংখ্যা বেড়ে যায়। যেখানে আগে সারা বছরে মোটরসাইকেল নিবন্ধন নেয়ার সংখ্যা ছিল ৩০ হাজারের মতো‌ সেখানে ২০১৬ সালে নিবন্ধন নেয় অর্ধলক্ষাধিক মোটরসাইকেল। এ সংখ্যা ২০১৭ সালে হয় ৭৫ হাজার। ২০১৮ সালে তা ১ লাখ ছাড়িয়ে যায়।

বিআরটিএর হিসেবে এখন রাজধানীতে বৈধ মোটরসাইকেলের সংখ্যা সাত লাখ। রাইড শেয়ারিং সেবা চালুর পর নতুন করে তিন লাখ মোটরসাইকেল বেড়েছে। বাড়তে থাকা এ সংখ্যা এখনো অব্যাহত রয়েছে।

এ বিষয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, মোটরসাইকেল এখন মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে কোনো কিছুই ধ্বংস না করে তাকে একটি নীতিমালার মধ্যে আনতে হবে।

বিআরটিএ রাইড শেয়ারিং নীতিমালার আলোকে কয়েকটি কোম্পানিকে নিবন্ধন দিয়েছে। নিবন্ধন পাওয়া এসব কোম্পানি এখনো বিআরটিএতে তাদের মোটরসাইকেল সংখ্যার তথ্য জমা দেয়নি।

এমনকি বিআরটিএর নীতিমালা অনুযায়ী মোটরসাইকেল কোম্পানিগুলোর প্রযুক্তিগত তথ্য বিআরটিএতে জমা দেয়ার কথা, যা এখনো দেয়নি উবার পাঠাওসহ রাইড শেয়ারিং কোম্পানিগুলো।

বিআরটিএর নতুন নিয়ম অনুযায়ী, ড্রাইভিং লাইসেন্স ছাড়া মোটরসাইকেল কেনা যাবে না। মোটরসাইকেল নিবন্ধন করতে এলে তাকে আগে দেখাতে হবে ড্রাইভিং লাইসেন্স।

বুয়েটের দুর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউট-এআরআইর হিসাবে, ২০১৭ সালে রাজধানীতে ৪৮টি মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ৫৩ জন নিহত এবং ১৯ জন আহত হন। এ বছরের অক্টোবর শেষ হওয়ার আগেই সেই সংখ্যা পেরিয়ে গেছে। এ সময়ে ঢাকায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় অর্ধশতাধিক মৃত্যু এবং বহুলোক আহত হয়েছেন। কেউ কেউ পঙ্গুও হয়েছেন।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: