ঢাকা সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫০ অপরাহ্ন

সারাদেশে কমছে ডেঙ্গু রোগী

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: শনিবার, ১০ আগস্ট, ২০১৯
ইতোমধ্যেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশের উল্লেখযোগ্য পরিমাণ মানুষ। মাহমুদ হোসেন অপু

গত দুই দিনে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বাড়ার গতি কিছুটা কমেছে। শতকরা হিসাবে সেটি পাঁচ শতাংশ। এদিকে আজ শনিবার (১০ আগস্ট) পরিস্থিতির আরও উন্নতি হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম।

হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সকাল আটটা থেকে শুক্রবার সকাল আটটা পর্যন্ত সারাদেশে দুই হাজার দুজন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। তার আগের ২৪ ঘণ্টায় সংখ্যাটি ছিল দুই হাজার ৩২৬। তারও আগের ২৪ ঘণ্টায় দুই হাজার ৪২৮ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল।

রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে শুক্রবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছে মোট ৯৪৭ জন। আর ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে এক হাজার ৫৫ জন ডেঙ্গু রোগী।

তার আগের ২৪ ঘণ্টায় ঢাকার বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয় মোট এক হাজার ১৫৯ জন। ঢাকার বাইরের জেলাগুলোর হাসপাতালে ভর্তি হয় এক হাজার ১৬৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে, বছরের শুরু থেকে এই পর্যন্ত ৩৬ হাজার ৬৬৮ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়। হাসপাতালে রোগী ভর্তি হওয়ার হার কমার পাশাপাশি মৃত্যুর হারও কমেছে গত দুই দিনে। সরকারি হিসাবে চলতি বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ২৯ জন মারা গেছে। তবে বেসরকারি হিসাবে মৃতের সংখ্যা ৮০ ছাড়িয়ে গেছে।

আজ সকাল নাগাদ সারাদেশে মোট আট হাজার ৭৬৩ জন ডেঙ্গু রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে পাঁচ হাজার ৪৬ জন। বাকি জেলাগুলোর বিভিন্ন হাসপাতালে মোট তিন হাজার ৬৮৭ জন।

সরকারি হিসেবে চলতি বছর এপ্রিলে ৫৮ জন, মে মাসে ১৯৩ জন, জুনে ১৮৮৪ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। জুলাই মাসে তা এক লাফে ১৬ হাজার ২৫৩ জনে পৌঁছায়। আর অগাস্টের প্রথম আট দিনেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ১৮ হাজার ২০৭ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বলছে, রোগীর সংখ্যা বাড়লেও রোগমুক্ত হয়ে বাড়ি ফেরা মানুষের সংখ্যাও বাড়ছে। ডেঙ্গু আক্রান্তদের মধ্যে ৭৫ শতাংশ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা বিভাগের জেলাগুলোতেই সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে গেছেন। এসব জেলায় ভর্তি হয়েছেন মোট ২৩৮ জন। আগের দিন ২৮৩ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছিল।

এ ছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগে ২২৩ জন, খুলনা বিভাগে ১৪৯ জন, বরিশাল বিভাগে ১৬৭ জন, রাজশাহী বিভাগে ১০৪ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৭০ জন, রংপুর বিভাগে ৭৫ জন এবং সিলেট বিভাগে ২৯ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে গেছেন গত ২৪ ঘণ্টায়।

ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব কোরবানির ঈদের ছুটিতে বিপজ্জনক মাত্রায় পৌঁছতে পারে বলে সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা। কেননা ঈদ উপলক্ষে লাখ লাখ মানুষ শহর থেকে গ্রামে যাবে। এর মধ্য দিয়ে ছড়াতে পারে ডেঙ্গু ভাইরাস। সে জন্য ঢাকার বাইরে যাওয়ার আগে রক্ত পরীক্ষা করে নিশ্চিত হতে আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: