ঢাকা রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৭ অপরাহ্ন

রাইড শেয়ারিং প্রতিষ্ঠানের নিবন্ধন শুরু জুলাইয়ে

বাংলাদেশ প্রতিবেদন | ঈশ্বরদীনিউজটোয়েন্টিফোর.নেট
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২১ জুন, ২০১৯
মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী ১ জুলাই থেকে নিবন্ধন দেওয়ার কার্যক্রম শুরু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

রাইড শেয়ারিংয়ের সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোকে আগামী ১ জুলাই থেকে নিবন্ধন দেবে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। বৃহস্পতিবার (২০ জুন) বনানীতে বিআরটিএ ভবনে আয়োজিত এক সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

মূলত ২০১৬ সালের শেষ দিক থেকে রাইড শেয়ারিংয়ের সঙ্গে পরিচিত হয় রাজধানীবাসী। শুরুর দিকে সেবাটি অবৈধ বলে ঘোষণা দেয় বিআরটিএ। পরে রাইড শেয়ারিংয়ের জনপ্রিয়তার কারণে আগের অবস্থান থেকে সরে এসে নীতিমালা করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। ২০১৮ সালের মার্চ থেকে নীতিমালাটি কার্যকর করার কথা ছিল। নীতিমালা অনুযায়ী, রাইড শেয়ারিংয়ের সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দিষ্ট পরিমাণ ফির মাধ্যমে বিআরটিএ থেকে নিবন্ধন নিতে হবে। পাশাপাশি এর সঙ্গে জড়িত যানবাহনগুলোরও নিবন্ধন সনদ থাকতে হবে। কিন্তু এ ব্যাপারে কোনো পক্ষেরই যথেষ্ট প্রস্তুতি না থাকায় নীতিমালাটি আর কার্যকর হয়নি। তবে ১৬টি প্রতিষ্ঠান নিবন্ধনের জন্য আবেদন করেছিল।

বিআরটিএ সূত্রে জানা গেছে, আবেদন করা প্রতিষ্ঠানগুলোর কোনোটিই নীতিমালার সব শর্ত পূরণ করতে পারেনি। এ জন্য কোনো প্রতিষ্ঠানকেই এখনো নিবন্ধন দেওয়া হয়নি। এতে সরকারের রাজস্ব ক্ষতির পাশাপাশি এই খাতকে শৃঙ্খলার মধ্যে আনা যাচ্ছে না। এমন অবস্থায় সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে একটি নির্দেশনা দেওয়া হয়। এ নির্দেশনা অনুযায়ী, রাইড শেয়ারিং অ্যাপ থেকে ‘ন্যাশনাল ইমারজেন্সি হেল্পলাইনে (৯৯৯)’ কল করার ব্যবস্থা রাখা সাপেক্ষে আগামী ১ জুলাই থেকে নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু করতে বলা হয়। রাইড শেয়ারিং অ্যাপ থেকে ‘ন্যাশনাল ইমারজেন্সি হেল্পলাইনে’ কল করার বিষয়টি রাইড শেয়ারিং নীতিমালাতেও উল্লেখ রয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে বিআরটিএ চেয়ারম্যানকে ফোন করলে তিনি ধরেননি। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সংস্থাটির একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা বলেন, অ্যাপ থেকে ৯৯৯–এ যোগাযোগ করার বিষয়টি পুলিশের সঙ্গে জড়িত। তাই তাদের অগ্রগতি জানতে বৃহস্পতিবার সভা করা হয়েছে। সভায় পুলিশ সদর দপ্তর, ঢাকা মহানগর পুলিশ, ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, রাইড শেয়ারিং অ্যাপের সঙ্গে ৯৯৯ যুক্ত করার সঙ্গে কারিগরি বেশ কিছু বিষয় জড়িত আছে, এ জন্য কিছু যন্ত্রপাতিও কিনতে হবে। তাই আরও কিছু সময় প্রয়োজন। সময়টি নির্দিষ্ট করে উল্লেখ করা হয়নি। তারপর মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী ১ জুলাই থেকে রাইড শেয়ারিংয়ের সঙ্গে যুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলোকে নিবন্ধন দেওয়ার কার্যক্রম শুরু করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পরে পুলিশের কাজ শেষ হলে অ্যাপের সঙ্গে ৯৯৯ যুক্ত করা হবে। এ সভায় রাইড শেয়ারিংয়ের সঙ্গে যুক্ত কোনো প্রতিষ্ঠানকে ডাকা হয়নি।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: