ঢাকা বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫৫ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীনিউজ২৪.নেট, প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত: শনিবার, ২৭ এপ্রিল, ২০১৯
খেলাধুলায় ব্যস্ত শিশু

 

জন্মগত স্নায়ুবিকাশজনিত সমস্যাগ্রস্ত (অটিজম) অর্ধশতাধিক শিশুর কলকাকলিতে মুখর হয়ে উঠেছিল রাজধানীর গুলশান সেলিব্রেশন ভবনের তৃতীয় তলায় অবস্থিত ইনার সার্কেল সংস্থার কার্যালয়। সেখানে অভিভাবকের হাত ধরে এসেছিল এসব শিশুরা। বিভিন্ন রকম খেলনা সামগ্রী নিয়ে সারাদিন মেতেছিল খেলাধুলায়। আর এসব শিশুদের সঙ্গ দেন অভিভাবকের পাশাপাশি ইনার সার্কেল এর কর্মীরাও।

সাজেদা ফাউন্ডেশনের সহযোগী সংগঠন ‘ইনার সার্কেল’ ও সিঙ্গাপুরের ‘অটিজম রিকভারি নেটওয়ার্ক’ এর যৌথ উদ্যোগে শনিবার (২৭ এপ্রিল) দিনব্যাপী সেমিনারের আয়োজন করা হয় এখানে। 

স্নায়ুবিকাশজনিত সমস্যাগ্রস্ত শিশুদের প্রতি সচেতনতা বৃদ্ধি ও সামাজিক প্রতিবন্ধকতা দূরীকরণের লক্ষ্যে এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

সেমিনারের প্রতিপাদ্য ছিল- এমব্রেস ডিফারেন্সেস বা পরিবর্তনকে সাদর আলিঙ্গন। 

স্মায়ুবিকাশজনিত সমস্যাগ্রস্ত শিশু ও তাদের অভিভাবক ছাড়াও অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসক, এনজিও কর্মী, সমাজকর্মী ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারের এক বিশেষ সেশনে সিঙ্গাপুরভিত্তিক স্বনামধন্য অটিজম রিকভারি সংস্থা অটিজম রিকভারি নেটওয়ার্ক এর বিহেভিয়রাল কন্সালট্যান্ট (আচরণবিষয়ক পরামর্শক) হারশিত ভাট প্রতিবন্ধী শিশুদের সাথে মা-বাবার বোঝাপড়া ও সমন্বয় সৃষ্টি, মানসিক সম্পর্ক স্থাপন, বাচনগত ও আচরণগতভাবে তাদের নির্দেশনা প্রদান ও সমর্থন অর্জনের পাশাপাশি বিজ্ঞানভিত্তিক অ্যাপলাইড বিহেভিয়র অ্যানালাইসিস-ভারবাল ভিহেভিয়র (এবিএ-ভিবি) এর প্রাথমিক স্তরগুলোর সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তুলে ধরেন।

পৃথক পৃথক সেশনে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে কথা বলেন- অটিজম রিকভারি নেটওয়ার্কের প্রোগ্রাম সুপারভাইজার শ্যারন মে, মাইকেল ডেমিঙ্গো এবং আন্তর্জাতিক স্পিচ থেরাপি কন্সালট্যান্ট সুম হুই টিং। এ সময় ইনার সার্কেল-এর আন্তর্জাতিক অকুপেশনাল থেরাপিস্ট কন্সালট্যান্ট গুয়ো হুয়া উপস্থিত ছিলেন।

স্নায়ুবিকাশজনিত সমস্যাগ্রস্ত শিশুদের নিয়ে গত দুই বছর ধরে কাজ করে আসছে ইনার সার্কেল। এখন থেকে সিঙ্গাপুরের অটিজম রিকভারি নেটওয়ার্কের বিশেষজ্ঞদের সাথে যৌথভাবে সেবা প্রদান করবে সংস্থাটি। অটিজম শিশুদের জন্য এই মানের সেবা বাংলাদেশে এই প্রথম বলে দাবি করছে ইনার সার্কেল।

ইনার সার্কেল-এর হেড অব অপারেশন ফারিয়া রহমান জাগরণকে জানান, বর্তমানে ৪০জন শিশুকে তারা সেবা প্রদান করছেন। বিভিন্ন মেয়াদে তারা শিশুদের চিকিৎসা ও শিশুদের অভিভাবককে প্রশিক্ষণ ও পরামর্শও প্রদান করে আসছেন। 

বর্তমানে ইনার সার্কেল এ ১৮জন প্রশিক্ষক কর্মরত আছেন বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: