ঢাকা রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১, ০৬:২৭ অপরাহ্ন

বেড়া ও সাঁথিয়ায় বজ্রপাতে দুজন নিহত, একজন নিখোঁজ

পাবনা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: সোমবার, ১৫ জুলাই, ২০১৯
প্রতীকী ছবি

পাবনার বেড়ায় যমুনা নদীতে বজ্রপাতে নৌকার একজন মাল্লা নিহত ও আরেক মাল্লা নিখোঁজ রয়েছেন। অন্যদিকে বজ্রপাতে সাঁথিয়া উপজেলায় সাগরদাড়ি গ্রামে একজন নিহত হয়েছেন। রবিবার (১৪ জুলাই) সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী সুত্রে জানা যায়, রাজশাহী জেলার পুঠিয়া উপজেলার মৃত রফিকুল ইসলামের ছেলে ইমান আলী (৫০) একই জেলার নলডাঙ্গা উপজেলার মৃত সোলেমানের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৩০) একটি শ্যালোইঞ্জিনচালিত নৌকায় রাজশাহী থেকে আম ও কলা নিয়ে ঢাকায় একটি আড়তে আনলোড করে রাজশাহী ফিরছিলেন। রবিবার (১৪ জুলাই) সন্ধা ৭টার সময় বেড়া উপজেলার নাকালিয়া বাজারের সমানে যমুনার মাঝ নদীতে পৌঁছালে হঠাৎ বৃষ্টি শুরু হয় ও বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। এ সময় বজ্রপাতে ঘটনাস্থলেই নৌকার মাল্লা ইমান আলী নিহত হন। অপর মাল্লা সাইফুল ইসলাম যমুনা নদীতে পড়ে নিখোঁজ হন।

খবর পেয়ে স্থানীয়রা ইমান আলীকে উদ্ধার করে বেড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। অপরদিকে নিখোঁজ সাইফুলকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে বেড়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মী ও স্থানীয়রা।

বেড়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার সোহেল আহম্মেদ জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যাই। নদীতে প্রচণ্ড স্রোতের কারণে নিখোঁজ ব্যক্তিকে উদ্ধার করা সম্ভাব হয়নি। হাটুরিয়া নাকালিয়া ইউনিয়ন সাবেক মেম্বার আব্দর রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে রবিবার (১৪ জুলাই) সাঁথিয়া উপজেলার নন্দনপুর ইউনিয়নের সাগরদাড়ি গ্রামের ইয়াকুবের ছেলে আলমাস (৩২) বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন। জানা যায়, রবিবার (১৪ জুলাই) বিকাল ৫টার সময় একই গ্রামের আলমাস (৩২) ও শামীম (৩০) বাড়ির পাশের একটি বিলে মাছ ধরতে যায়। এ সময় বৃষ্টি শুরু হলে বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। বজ্রপাতে তারা আহত হলে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে পাবনা সদর হাসপাতালে নেওয়ার পথে সন্ধ্যায় আলমাস মারা যায়। শামীম চিকিৎসাধীন।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666