ঢাকা শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ১১:৫৩ অপরাহ্ন

পাবনায় ১১ মাদক মামলার আসামি বন্দুকযুদ্ধে নিহত

পাবনা প্রতিনিধি
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২১ জুন, ২০২০
পাবনার ম্যাপ

পাবনার সাঁথিয়ায় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে আব্দুস সোবাহান (৪২) নামের পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন।

সোবাহান সাঁথিয়া উপজেলার করমজা ইউনিয়নের করমজা সরদারপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদ এর ছেলে। শনিবার (২০শে জুন) দিবাগত রাত তিনটার দিকে পাড় করমজা কবরস্থান এলাকায় এ বন্ধুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। আব্দুস সোবাহান রোববার সকাল ছ’টার দিকে বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। সোবহানের বিরুদ্ধে ১১টি মাদক মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানায়। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র -গুলি ও মাদক উদ্ধার করেছে।

এ ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হন । এরা হলেন- কনস্টেবল জসিম ও কনস্টেবল মামুন। তাদের বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হয়।

সাঁথিয়া থানার ওসি তদন্ত আমিনুল ইসলাম জানান, পুলিশ গোপন সংবাদে জানতে পারে মাদকের একটি বড় চালান পাড় করমজা থেকে পাচার হচ্ছে। এ সংবাদের ভিত্তিতে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা( ওসি) মো. আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালায়। পুলিশ উপজেলার পাড় করমজা কবরস্থান এলাকায় পৌঁছামাত্র তাদের উপর কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী গুলি ছুড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি করে। এ সময় উভয়পক্ষের বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়।

মাদক ব্যবসায়ীরা পিছু হটার পর ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ আব্দুস সোবাহান কে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে। তাকে রাতেই বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সকাল ৬টার দিকে তিনি মারা যান।

এ ঘটনায় পুলিশ সদস্যের দুই কনেষ্টেবল আহত হন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৩০ গ্রাম হেরোইন, একটি ওয়ান স্যুটার গান, এক রাউন্ড গুলি ও দুইটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করে।

পাবনা পুলিশ সুপার, শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম,পিপিএম জানান নিহত আব্দুস সোবাহান এলাকায় মাদক সম্রাট বলে পরিচিত ছিলেন। তার বিরুদ্ধে সাঁথিয়া, বেড়া ও আমিনপুর থানায় মোট ১১ টি মাদক মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরে প্রক্রিয়া চলছে বলে তিনি জানান।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২০
 
themebaishwardin3435666