ঢাকা শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৮:১১ অপরাহ্ন

বেতনের অর্ধেক নিয়ে করোনা মোকাবিলায় নামলেন ২৭ ক্রিকেটার

খেলার সংবাদ
  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৫ মার্চ, ২০২০
ফাইল ছবি

সারা বিশ্বে মহামারি আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। দিন দিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। করোনার কবলে একে একে বন্ধ হয়ে যাচ্ছে বিশ্বের সব টুর্নামেন্ট। তবে করোনার কারণে ঘরে থাকা বিশ্বের খেলোয়াড়রা চুপ করে নেই। বিশ্বের বিভিন্ন খেলোয়াড়ই করোনা মোকাবিলায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন। এবার সে তালিকায় যোগ হলেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও।

করোনার প্রকোপ ঠেকাতে এত দিন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সতর্ক বার্তা দিয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। এবার নিজেদের মাসিক বেতনের ৫০ শতাংশ অর্থ দিয়ে তহবিল গঠন করছেন ক্রিকেটাররা।

বাংলাদেশে ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কেন্দ্রীয় চুক্তিতে থাকা ১৭ ক্রিকেটার চলতি মাসের বেতনের ৫০ শতাংশ দিয়ে দেবেন করোনা মোকাবিলার সাহায্যের তহবিলে। চুক্তির বাইরে যে ১০ ক্রিকেটার গত তিন মাসে নিয়মিত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন তাঁরাও তাঁদের বেতনের ৫০ শতাংশ দেবেন।

এ উদ্যোগ দেখে বাকিরাও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে অনুপ্রাণিত হবেন বলে মনে করেন ক্রিকেটাররা। তরুণ ব্যাটসম্যান ইয়াসীর আলী এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘এমন অবস্থায় এটা খুব ভালো উদ্যোগ। আমরা যারা সক্ষম, তারা যদি এভাবে এগিয়ে আসি, তাহলে করোনা মোকাবিলা করা সরকারের জন্য সহজ হবে। আমরা ক্রিকেটাররা সবাই নিজেদের জায়গা থেকে যদি ব্যক্তিগতভাবে দিতাম তাহলে এটা অল্প হতো। তেমন সাহায্যেও লাগত না। এখন আমরা ২৭ জন মিলে দিচ্ছি,  এটা দিয়ে হয়তো ২০ হাজার লোককে একসঙ্গে খাওয়ানো যাবে। কারণ এ কঠিন মুহূর্তে অনেকেই বেকার। আমরা চাই আমাদের এ চেষ্টার মাধ্যমে এ অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে। আমাদের উদ্যোগ দেখে সমাজের অনেকে অনুপ্রাণিত হবে বলে আমি মনে করি।’

পেসার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন লিখেছেন, ‘করোনায় আক্রান্ত মানুষের জন্য আমরা আমাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিলাম। আপনারাও আপনাদের অবস্থান থেকে যদি কিছু করতে পারেন, তাহলে আমরা ইনশা আল্লাহ এটা (করোনাভাইরাস) প্রতিরোধ করতে পারব।’

তরুণ লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘এখন দেশের অবস্থা খুব খারাপ। অনেকেই সমস্যায় আছে। কেউ কেউ বেকার হয়ে যাচ্ছে। তাই অসহায় মানুষগুলোর পাশে আমরা দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। আমরা সবাই একসঙ্গে বসে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা আমাদের জায়গা থেকে চেষ্টা করেছি। আমাদের দেখে আরো অনেকেই আসবে আসবে বলে আমি মনে করি।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুশফিকুর রহিম লিখেছেন, ‘আসসালামুআলাইকুম। আপনারা সবাই জানেন করোনাভাইরাসের সংক্রমণে চারদিকে ক্রমেই ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ রোগ। এই রোগ প্রতিরোধে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশও ব্যতিক্রম নয়। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। এর অংশ হিসেবে আমরা ক্রিকেটাররা একটা উদ্যোগ নিতে যাচ্ছি, যেটি হয়তো অনুপ্রাণিত করতে পারে আপনাদেরও। আমরা এ মাসের বেতনের ৫০ শতাংশ দিয়ে একটা তহবিল গঠন করেছি। এ তহবিল ব্যয় হবে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং সাধারণ মানুষ যাদের গৃহবন্দি থাকা অবস্থায় জীবন চালিয়ে নিতে অনেক কষ্ট হয়।’

‘তহবিলে জমা পড়েছে প্রায় ৩০ লাখ টাকার মতো। কর কেটে থাকবে ২৬ লাখ টাকা। করোনার বিরুদ্ধে জিততে হলে আমাদের এ উদ্যোগ হয়তো যথেষ্ট নয়। কিন্তু যাঁদের সামর্থ্য আছে, সবাই যদি একসঙ্গে এগিয়ে আসেন কিংবা ১০ জনও যদিও এগিয়ে আসেন, এ লড়াইয়ে আমরা অনেক এগিয়ে যাব। হ্যাঁ, এরই মধ্যে করোনা মোকাবিলায় অনেকে এগিয়ে এসেছেন। তাদের অবশ্যই সাধুবাদ জানাই। কিন্তু বৃহৎ পরিসরে যদি আরো অনেকে এগিয়ে আসে, তাহলে আমরা এ লড়াইয়ে জিততে পারব ইনশা আল্লাহ। সে সহায়তা হতে পারে ১০০, ৫০০০ কিংবা এক লাখ টাকা দিয়ে। টাকা দিয়ে না হোক, হতে পারে দুস্থ মানুষকে খাবার কিনে দিয়ে। আসুন পুরো দেশকে আমরা একটা পরিবার ভেবে চিন্তা করি এবং এ বিপদে সবাই সবাইকে সহায়তা করি। আল্লাহ আমাদের নিশ্চয়ই রক্ষা করবেন।’

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: