ঢাকা শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৪ অপরাহ্ন

অধিনায়ক মাশরাফির পরে কে

খেলার সংবাদ
  • প্রকাশিত: রবিবার, ৮ মার্চ, ২০২০
এই তিনজনের যে–কেউ হতে পারেন মাশরাফির উত্তরসূরি। ফাইল ছবি

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে আলোচনার কেন্দ্রে ছিল অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার বিদায়। সিরিজের আগে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান ইঙ্গিত দেওয়ার পরও শেষ ওয়ানডের আগে মাশরাফি যখন নিজেই অধিনায়কত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিলেন, সেটি আলোড়ন ফেলে বাংলাদেশের ক্রিকেটে। বিসিবি এখন ঠিক করবে নতুন অধিনায়ক। এটিই আজ বিকেলে বোর্ড সভার মূল আলোচ্যসূচি।

নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক হিসেবে কাকে পছন্দ মাশরাফির? এ প্রশ্নে সিলেটে সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়কের উত্তর ছিল, ‘সাকিব (আল হাসান) তো এখন বাইরে। সিনিয়র আরও যে তিনজন আছে, তাদের মধ্য থেকে কেউ হতে পারে।’ বিসিবিও ভিন্ন কিছু চিন্তা করছে না। আজ বোর্ড সভায় ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ নানা যুক্তি তুলে ধরে উপস্থাপনা করবে-কে হতে পারেন পরবর্তী অধিনায়ক। সবার মুক্ত আলোচনার পরিপ্রেক্ষিতে বিসিবি সভাপতি চূড়ান্ত করবেন একটি নাম। গতকাল কয়েকজন পরিচালক আভাস দিলেন, জ্যেষ্ঠ তিন খেলোয়াড়-মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ ও তামিম ইকবালের মধ্য থেকেই একজনকে অধিনায়ক করা হবে।

২০১১ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত অধিনায়কত্ব করেছেন মুশফিক। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে তাঁর কাছ থেকেই ওয়ানডে অধিনায়কত্ব পেয়েছিলেন মাশরাফি। ৩৭ ওয়ানডেতে ১১ জয়ের বিপরীতে ২৪ হার-মুশফিকের সাফল্যের হার ৩১.৪২ শতাংশ। আবারও তাঁর কাঁধে নেতৃত্বভার ওঠা নির্ভর করছে বিসিবি ও মুশফিক উভয় পক্ষের সমান আগ্রহের ওপর। বাংলাদেশ দলের অন্যতম সফল এই ব্যাটসম্যান মাঝখানে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছিলেন, অধিনায়কত্বে খুব একটা আগ্রহী নন তিনি। এখন আগ্রহী হলে বিসিবি তাঁকে বেছে নিতে পারে মূলত দুটি কারণে-নিয়মিত ভালো খেলেন ও চাপ সামলানোর অভিজ্ঞতা আছে।

অধিনায়কত্বের দৌড়ে এখানেই আবার একটু পিছিয়ে পড়তে পারেন তামিম। বাঁহাতি ওপেনারকে নিয়ে একটি কথা বেশ প্রচলিত দেশের ক্রিকেটে-সহ-অধিনায়ক হিসেবে যতটা ভালো, অধিনায়ক হিসেবে ততটা নন। তামিমের নেতৃত্বে গত জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কায় তিনটি ওয়ানডে খেলে বাংলাদেশ। অধিনায়কত্বের চাপে তামিম নিজে ভালো করতে পারেননি। দলও হয়েছে ধবলধোলাই। বিসিবির পরিচালকদের কারও কারও মত, ব্যাটসম্যান তামিমের কাঁধে অতিরিক্ত বোঝা না দেওয়াই ভালো।

সাকিবের অনুপস্থিতিতে বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়কত্ব করছেন মাহমুদউল্লাহ। এখন তিনি অধিনায়ক টি-টোয়েন্টি দলের। এই সংস্করণে তাঁকে নিয়ে লম্বা মেয়াদেই পরিকল্পনা করছে বিসিবি। ওয়ানডেতে মাহমুদউল্লাহকে নেতৃত্ব দেওয়ার ব্যাপারে কিছুটা সংশয়ে আছে বোর্ড। তিন সংস্করণে তাঁর নিয়মিত না হতে পারাই এর কারণ। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান বলছেন, ‘যে দলে নিয়মিত, যার অভিজ্ঞতা আছে, অধিনায়ক হিসেবে চাপ নিতে পারে, সাহসী, এমন কাউকে বেছে নেব আমরা। সে ক্ষেত্রে সিনিয়র তিনজনের একজনই হয়তো হবে।’

প্রশ্ন থাকছে, বিসিবি সিরিজ ধরে ধরে এগোবে, না লম্বা মেয়াদে কাউকে দায়িত্ব দেওয়া হবে? আকরাম বলছেন, ‘ওয়ানডেতে আমাদের দলের যে অবস্থা, প্রস্তাব দেব অন্তত তিন-চারটা সিরিজ পর্যন্ত যেন থাকে। যাতে দলকে সে গুছিয়ে নিতে পারে।’ বিসিবির মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুসেরও অভিন্ন কথা, ‘বেশির ভাগ ক্ষেত্রে আমরা সিরিজ ধরে ধরে এগোচ্ছি। তবে লম্বা মেয়াদে হলে ভালো হয় যাতে সে দলকে গুছিয়ে নিতে পারে। ২০২৩ বিশ্বকাপের দল কী হবে, অধিনায়ক কে, সেটার পথ বের করতে বোর্ডের এই সভায় আলাপ-আলোচনা হতে পারে। আমরা চাই এমন একজনকে, যে ২০২৩ পর্যন্ত অধিনায়কত্ব করতে পারে।’

বোর্ডের আজকের সভায় ক্রিকেটারদের কেন্দ্রীয় চুক্তি, এ বছরই পাকিস্তান, আয়ারল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কায় সফর নিয়েও আলোচনা হওয়ার কথা।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: