ঢাকা শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০২:১১ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীতে সাধারন মানুষের আতংক সোর্স কৃষ্ণ

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৯
সৌরভ কুমার কৃষ্ণ। ফাইল ছবি

ঈশ্বরদীতে পুলিশের সোর্স সৌরভ কুমার কৃষ্ণ (২৬) এখন সাধারন মানুষের মূর্তিমান আতঙ্ক। আমবাগান পুলিশ ফাঁড়ির কতিপয় পুলিশের আশ্রয়ে-প্রশ্রয়ে এখন সে অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে। সাধারন মানুষকে জিম্মি করে গ্রেফতারের ভয় দেখিয়ে মোটা অংকের অর্থ বানিজ্য, পুলিশের সোর্স পরিচয়ের অন্তরালে মাদক ব্যবসা পরিচালনা ও দেহ ব্যবসাসহ নানা অপকর্ম অভিযোগ আছে তাঁর বিরুদ্ধে। তবে থানা পুলিশ তাকে কয়েক বার গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনেছে।

অনুসন্ধানে জানা যায়, বিভিন্ন এলাকার মাদক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে মাসোহারা, অবৈধ গ্যাস সংযোগ, মোবাইল চোর সিন্ডিকেট লালন ও দেহ ব্যবসাসহ নানা অবৈধ কর্মকান্ডের হোতা এই পুলিশ সোর্স।

জানা গেছে, কৃষ্ণ উপজেলার নূরমহল্লা বস্তিপাড়া এলাকার পবিত্র দেব নাথের ছেলে।

সূত্র জানায়, নিয়ম অনুযায়ী সোর্সদের পেশার পরিচয় গোপন রাখার কথা। কিন্তু বর্তমানে বিপরীত। নিজের প্রভাব বিস্তারে যেন সোর্সরা মেতে উঠেছে প্রতিনিয়তই। পুলিশের গাড়ীতে প্রকাশ্যে চলাফেরা করা ছাড়াও পুলিশকে পুজি করে সাধারন মানুষকে ভয় দেখানোর অভিযোগও সৌরভ কুমার কৃষ্ণর বিরুদ্ধে অহরহ। আর তাকে কোন মাদক কারবারি টাকা না দিলেই পুলিশ দিয়ে গ্রেফতার অভিযান করায়।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী বলেন, সোর্স পরিচয় দিয়ে কেউ চাঁদাবাজি করলে, তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কারও কাছে এমন কোনও তথ্য থাকে সঙ্গে-সঙ্গে পুলিশকে জানালে তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

এ বিষয়ে পুলিশের সোর্স সৌরভ কুমার কৃষ্ণর সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাঁর কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: