ঢাকা শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:৪৫ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে এবার লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড, গুজব ঠেকাতে মাইকিং

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৯
লবণের দোকানে ক্রেতাদের ভিড়

সারা দেশের মতো ঈশ্বরদীতে গত দুইদিন ছিল পেঁয়াজ নিয়ে হুলস্থুল। আবার মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) সন্ধ্যা থেকেই শুরু হয় লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড। উপজেলায় লবণের দাম বেড়ে যাচ্ছে এমন খবরে ক্রেতারা হুমড়ি খেয়ে পড়েন শহরের ভোগ্যপণ্যের দোকানে।

বাড়তি চাপে নিমিষেই ফুরিয়ে যায় বিভিন্ন দোকানের লবণ। আবার অনেক ব্যবসায়ী বেশি দামে বিক্রির জন্য লবণ মজুদ করে রাখেন বলেও অভিযোগ উঠেছে। অপরদিকে এ নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টি করার জন্য উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, সন্ধ্যা থেকে কোনো এক পক্ষ বাজারে গুজব ছড়িয়েছে যে লবণের কেজি ১৪০ থেকে ১৫০ টাকা। সত্যি বলতে লবণের দাম বৃদ্ধির খবর পুরোটাই গুজব। কেউ উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এই গুজব ছড়াতে পারে।

ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্র পুলিশ সুপার মো: জহুরুল হক জানান, আমরা মানুষদের সচেতন করতে প্রচারণা চালিয়েছি। যদি কোনো ব্যবসায়ী তারপরও অতিরিক্ত দামে লবণ বিক্রি করে, তাহলে আমরা আইনগত ব্যবস্থা নেব।

এদিকে ঈশ্বরদী বাজারের অনেক ব্যবসায়ীরাও জানিয়েছেন, লবণের চাহিদামাফিক সরবরাহ আছে। শিগগিরই দাম বাড়ার শঙ্কা নেই। তবে ব্যবসায়ীরা এমনটি দাবি করলেও মঙ্গলবার সন্ধ্যায় অনেক দোকানে বাড়তি দামে লবণ বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

হঠাৎ করেই লবণ কেনার হিড়িকের পরিপ্রেক্ষিতে জনগণকে বিভ্রান্ত না হওয়ার আহ্বান জানান ঈশ্বরদী উপজেলা ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মমতাজ মহল।

নিজের ফেসবুকে মমতাজ মহল লিখেছেন- ‘প্রিয় ঈশ্বরদীবাসী, বাজারে নিত্য-প্রয়োজনীয় সামগ্রীর পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে। কোনো নিত্য-প্রয়োজনীয় সামগ্রীর দাম বাড়তে পারে এমন গুজবে কান না দেয়ার জন্য সকলকে বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি। ’

তিনি আরও বলেন- লবণ নিয়ে কিংবা অন্য কোন বিষয়ে কোন ব্যক্তি বা মহল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বা অন্য যে কোনোভাবে গুজব ছড়ানোর চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী বাজারের সামনে ঈশ্বরদীনিউজটুয়েন্টিফোর.নেট এর সাথে কথা হয় আরিফ নামে এক ক্রেতার। তিনি জানান, আজ শুনছি লবণের দাম ১৪০ টাকা। আগামীকাল দাম আরো কয়েকগুণ বাড়তে পারে- এই আশঙ্কায় আজকে অনেকে লবণ কিনে রাখছেন। কারণ আগামীকাল অনেক দোকানে লবণের সংকট দেখা দিতে পারে।

মঙ্গলবার রাতে বাজারের বিভিন্ন দোকান ঘুরে দেখা গেছে, লবণ কেনার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন ক্রেতারা। বেশিরভাগ মুদির দোকানেই মজুদ ফুরিয়ে গেছে। দোকানে লবণ না পেয়ে দোকানিদের সঙ্গে ক্রেতাদের আক্রমণাত্মক আচরণ করতেও দেখা গেছে। সব ক্রেতাদেরই দাবি, লবণের দাম বাড়তে যাচ্ছে এমন খবর শুনেছেন। তাই লবণ কিনতে এসেছেন তারা।

তবে কোথায় এমন সংবাদ শুনেছেন এ কথা কেউ বলতে পারেননি। ঈশ্বরদী বাজারের মুদি দোকানি লিটন বলেন, সন্ধ্যার পর থেকে আচমকা কেবল লবণ কেনার জন্য ক্রেতারা এসে দোকানে ভিড় করতে থাকেন। অল্প সময়ের মধ্যেই আমার দোকানের সব লবণ শেষ হয়ে গেছে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: