ঢাকা রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৩ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে চিকিৎসকের অবহেলায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯
ঈশ্বরদীর ম্যাপ

ঈশ্বরদীতে চিকিৎসকের অবহেলায় যোদ্ধা তালুকদার (১৪) নামের এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তিনি উপজেলার অরণকোলা হাট এলাকার আবির হোসেন টুটুল তালুকদারের ছেলে ও এম.এ. গফুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেনীর শিক্ষার্থী।

রোববার (২৫ আগস্ট) উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৫০ শয্যার হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটেছে।

যোদ্ধার বাবা আবির হোসেন টুটুল জানান,  ‘রোববার সকালে তাঁর ছেলের প্রচণ্ড জ্বর অনুভব করলে তাঁকে হাসপাতালে আনা হয়। এ সময় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাসনিম তামান্না স্বর্ণা একটি ইনজেকশন দেন, ডেঙ্গু জ্বর পরীক্ষা করেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আসবেন জানিয়ে তিনি তাঁদের সেখানে আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করান। কিন্তু এ সময়ের মধ্যে তাঁর ছেলের অবস্থার আরও অবনতি ঘটে। তখন তড়িঘড়ি করে রোববার দুপুরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজে (রামেক) হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার (২৬ আগস্ট) ভোর সাড়ে চারটায় মৃত্যু হয় যোদ্ধার।

স্বজনেরা অভিযোগ করেন, এত বড় একটি হাসপাতাল। সেখানে একটি প্রেশার মাপার ভালো যন্ত্রও নেই। অক্সিজেন সিলিন্ডার থাকলেও নেই অক্সিজেনের ব্যবস্থা। তাঁরা প্রশ্নের সুরে বলেন, এ অবস্থায় কীভাবে একটি হাসপাতাল চলে?

এ বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযোগ অস্বীকার করে চিকিৎসক তাসনিম তামান্না স্বর্ণা বলেন, ‘সকালে ওই রোগী জ্বর নিয়ে হাসপাতালে আসলে আমি প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ভর্তি হতে বলি। সেই সঙ্গে দ্রুত ডেঙ্গু জ্বর পরীক্ষা করলেও ডেঙ্গু ধরা পরেনি। পরবর্তীতে তার অবস্থার অবনতি হলে ওই দিনই তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে মুঠোফোনে জানতে পারি সেই রোগী মারা গেছে।’

প্রসঙ্গত গত ৮ জুলাই রাত ১০ দিকে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাসনিম তামান্না স্বর্ণার অবহেলায় মদিনাতুল আক্তার মোহনা নামে আড়াই বছরের এক শিশুর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছিল।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: