ঢাকা শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১৯ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে টাকা ভাগাভাগি নিয়ে বিরোধ: হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষ

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: সোমবার, ২৬ আগস্ট, ২০১৯
অটোরিকশা, নসিমন ও সিএনজি স্ট্যান্ডের চাঁদার টাকা ভাগাভাগি নিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষ।

অটোরিকশা, নসিমন ও সিএনজি স্ট্যান্ডের চাঁদার টাকা ভাগাভাগি নিয়ে ঈশ্বরদীতে সারোয়ার হোসেন (২৪) নামে এক যুবলীগ-সমর্থককে পিটিয়ে হাত-পা ভেঙ্গে দিয়েছে প্রতিপক্ষরা। রোববার (২৫ জুলাই) সন্ধ্যা সাতটার দিকে শহরের রেলওয়ে জংশন স্টেশনের ওভারব্রিজ মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

তিনি পৌর এলাকার পশ্চিম টেংরী পানির ট্যাংকি এলাকার মৃত মোজাম্মেল হোসেনের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, রোববার সন্ধ্যায় ওভারব্রিজ মোড় এলাকায় একটি চায়ের দোকানে বসে চা খাচ্ছিলেন সারোয়ার। এ সময় ৩-৪ জন যুবক হঠাৎ এসে সারোয়ার হোসেনের ওপর হামলা চালিয়ে এলোপাতাড়ি মারধর করতে থাকেন।

ক্রিকেট খেলার স্ট্যাম্প ও হকির আঘাতে সরোয়ারের ডান হাত ও পা ভেঙ্গে যায়। পরে স্থানীয়রা আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নেয়। পরে অবস্থার অবনিত হলে কর্তব্যের চিকিৎসক রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যাওয়ার পরমর্শ দেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক দেবব্রত পাল বলেন, ‘আহতের এক পা ও হাত ভেঙ্গে গেছে। তিনি আরো বলেন, ডান পায়ের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার সারা শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহৃ রয়েছে।’

এ বিষয়ে আহত সারোয়ার হোসেন জানান, ‘হামলাকারী যুবকদের টিঙই চিনতে পেরেছে । সে একটু সুস্থ হলেই এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা করবেন।’

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী বলেন, ‘ঘটনাটি জানার পর পুলিশ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে তার বক্তব্য শুনেছে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

একটি সূত্র জানায়, রেলগেট ও করইতলা এলাকার অটোরিকশা, নসিমন ও সিএনজি স্টেশনে নেতৃত্ব দিয়ে আসছিল পৌর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম লিটন। সম্প্রতি টাকা ভাগাভাগি নিয়ে প্রতিপক্ষের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জের ধরেই তার হাত ও পা ভেঙ্গে দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: