ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীতে নারী শ্রমিক ছাঁটাই নিয়ে অস্বস্তি রশিদ অয়েল মিলে

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট, ২০১৯
ছাঁটাই প্রত্যাহারের দাবীতে শ্রমিকদের অবস্থান রশিদ অয়েল মিলস লিমিটেডের সামনে। ছবিটি বৃহস্পতিবার দুপুরে তোলা।

‘কারণ ছাড়াই চাকরি থেকে ছাঁটাইয়ের’ প্রতিবাদে ও চাকরিতে পুনর্বহালের দাবীতে ঈশ্বরদীতে ব্যক্তিমালিকানাধীন একটি তেল উৎপাদন কারখানায় নারী শ্রমিকেরা খারখানাটি ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেছেন।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার বহরপুরে অবস্থিত রশিদ ওয়েল মিলস লিমিটেডের শ্রমিকেরা এ আন্দোলন করেন।

চাকুরিচ্যুত নারী শ্রমিকরা জানান, প্রায় দুই বছর এই মিলের শ্রমিক হিসেবে কাজ করে আসছেন। এবার কোরবানি ঈদের ছুটির শেষ কর্মদিবস গত ১০ই আগষ্ট মিল কর্তৃপক্ষ লিখিত নোটিশ না দিয়ে হঠাৎ করে মৌখিকভাবে জানায়, ঈদের পর থেকে তাদের চাকরিতে আসতে হবেনা। তাদের চাকুরিচ্যুত করা হয়েছে। এমন খবরে তারা বিস্মিত হয়ে কারণ জানতে চাইলে তাদের ঈদের পর যোগাযোগ করতে বলা হয়। সেই অনুযায়ী ঈদের ছুটির পর কাজে যোগ দিতে গেলে মিলের প্রধান গেট থেকে তাদের বের করে দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার চাকুরিচ্যুত সকল শ্রমিক আবারো একত্রিত হয়ে মিলের সামনে বিক্ষোভ, মিল ঘেরাও এবং প্রধান ফটকের সামনে কয়েক ঘন্টা অবরোধ করে। তারা কোনো কারণ ছাড়াই চাকুরি থেকে ছাটাইয়ের প্রতিবাদ ও চাকরি পূর্নবহালের দাবি জানান। শ্রমিকরা অভিযোগ করেন, এসময় মিলের কয়েকজন স্টাফ এক নারী শ্রমিককে মারধর করেছে।

নারী শ্রমিক সেলিনা খাতুনসহ অন্যরা বলেন, নিয়ম অনুযায়ী চাকরিচ্যুত করার ৩ মাস আগে নোটিশ ও ৩ মাসের বেতন দেওয়ার কথা, কিন্তু এসব কোন নিয়মের তোয়াক্কা না করে তাদের ২৪ জনকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুর রশিদ বলেন, মিলের সয়াবিন ইউনিট বন্ধ হওয়ায় এই ইউনিটের শ্রমিকদের চাকরিচ্যুত করা হয়েছে তবে সয়াবিন ইউনিট চালু হলে তাদের চাকরিতে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666