ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ১১:৪১ পূর্বাহ্ন

দেশি গরুতে সয়লাব ঈশ্বরদীর পশুর হাট

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৬ আগস্ট, ২০১৯
হাটে সামাজিক দূরত্ব নেই। মাস্ক পরছেন না বেশির ভাগ ক্রেতা-বিক্রেতা।

ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে ঈশ্বরদীতে জমজমাট হয়ে ওঠেছে পশুর হাট। উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা দেশি গরু, মহিষ, ছাগলে সয়লাব হাট-বাজারগুলো।

কোরবানিকে ঘিরে উপজেলার ছোট-বড় প্রায় ২ হাজার ৮০৪ জন খামারির কাছে ৭ হাজার ৪৫০ বেশি পশু মজুদ রয়েছে। প্রাকৃতিক খাবারের ওপর নির্ভর এসব পশু স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাচ্ছে। দামও রয়েছে নাগালের মধ্যে।

উপজেলার অরনকোলা পশু হাট, আওতাপাড়া পশুর হাট ও নতুন হাট ছাগলের হাটে পুরোদমে চলছে বেচাকেনা। হাটে রয়েছে পর্যাপ্ত স্থানীয় পশু। ক্রেতা-বিক্রেতাদের উপস্থিতিতে সরব হাট-বাজারগুলো।

উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের তথ্য মতে,  এ বছর ঈশ্বরদী উপজেলায় পবিত্র ঈদুল আজহায় কোরবানিযোগ্য গবাদিপশুর সংখ্যা প্রায় ১৯ হাজার ৯৭০। এর মধ্যে গরু ও মহিষ ৭ হাজার ৭৪৩ এবং ছাগল ও ভেড়ার সংখ্যা ১২ হাজার ২২৭। একই সঙ্গে ২৭০ নির্দিষ্ট স্থানে কোরবানি করা, ময়লা-বর্জ্য যত্রতত্র না ফেলা, কোরবানির আগে ও পরে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখতে ঈশ্বরদী পৌরসভা ও উপজেলা পরিষদের সহযোগিতায় উপজেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয়ের সর্বাত্মক ব্যবস্থা নিয়েছে।

লক্ষীকুন্ডা ইউনিয়নের গরু ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, গেল বাজারে তিনটি গরু এনে দাম না পাওয়ায় নিয়ে গেছি। শেষের দিকে হয়তো ভালো দামে বিক্রি করতে পারবো।

অরণকোলা পশু হাট-বাজারের ইজারাদার আলহাজ্ব মিজানুর রহমান রুনু মন্ডল বলেন, বাজারে পর্যাপ্ত পশু আছে। প্রাকৃতিক খাবারের ওপর নির্ভর এসব পশু স্থানীয় চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে যাচ্ছে।

ঈশ্বরদী উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম বলেন, এ বছর ৮ হাজারেরও বেশি পশু মজুদ আছে। পাবনা জেলায় এ উপজেলার পশুর চাহিদা রয়েছে। এ বছর পশু কোরবানির সংখ্যা কিছুটা বাড়তে পারে বলেও জানান তিনি।

কোরবানির পশুর হাটে কয়েক স্তরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এছাড়াও ব্যবসায়ীরা চাইলে বাড়তি নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী।

তিনি বলেন, হাট-বাজারসহ গুরুত্বপূর্ণ সড়কে পুলিশের বিশেষ নিরাপত্তা রয়েছে। পশু সরবরাহ কিংবা টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে কেউ যদি পুলিশ সহায়তা চায়, আমরা দিতে প্রস্তুত আছি।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: