ঢাকা শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৩৯ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে ব্যারিস্টার রুমীন ফারহানা: আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ পুরো বাংলাদেশ

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই, ২০১৯
বক্তব্য রাখছেন বিএনপির সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমীন ফারহানা। মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই।

ঈশ্বরদীতে ১৯৯৪ সালে শেখ হাসিনার ট্রেনে গুলিবর্ষণের ঘটনার মামলার রায়ের সমালোচনা করেছেন বিএনপির সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার রুমীন ফারহানা।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দুপুরে উপজেলার সাহাপুর মালিথাপাড়া বিএনপি নেতা হাবিবুর রহমান হাবিবের নিজের বাড়ির আঙিনায় স্থানীয় বিএনপির সাজাপ্রাপ্ত নেতাকর্মীদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে স্বাক্ষাৎ ও রায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভায় তিনি বলেন, ‘আমি নিজেও একজন আইনজীবী। আমি জীবনেও কোন দিন শুনি নাই ২৫ বছরের আগের ঘটনা যেখানে কেউ আহত হয় নাই, কারও গায়ে একটা আঁচড় পর্যন্ত লাগে নাই, সেখানে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে, সেখানে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে। এ রকম রায় যে হতে পারে এটা শেখ হাসিনার সরকার দেখিয়ে গেল বাংলাদেশের মাটিতে।’

ঈশ্বরদীতে দন্ডপ্রাপ্ত বিএনপির নেতা-কর্মীর স্বজনদের সহানূভূতি জানাতে  বিএনপির ৬ সংসদ সদস্য।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ কিন্তু খুব ক্ষুদ্র হয়ে গেছে। তাঁরা গুটি কয়েক মানুষের একটা দল, যারা সুবিধাভোগী, যারা রাষ্ট্রের সমস্ত শক্তি ব্যবহার করে ক্ষমতা আঁকড়ে ধরে বেঁছে আছেন। তাঁদের সঙ্গে আছে পুলিশ প্রশাসন। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ বিএনপির সঙ্গে আছে। তাঁর মানে আওয়ামী লীগ বনাম বাংলাদেশ, আওয়ামী লীগ বনাম বিএনপি কিন্তু না। আওয়ামী লীগের প্রতিপক্ষ পুরো বাংলাদেশ।’

নেতাকর্মীদের উদ্দেশে রুমীন ফারহানা আরও বলেন, আপনারা অনেক ত্যাগ স্বীকার করেছেন। বিগত কয়েক বছর যাবৎ ধরে এই স্বৈরাচারী সরকার আমাদের অসংখ্য ভাইকে গুম করেছে, আমাদের হাজার হাজার নেতাকর্মীকে বিনা কারণে গ্রেফতার করে কারাগারে নিক্ষেপ করেছে। সবশেষ আমাদের গণতন্ত্রের মাতা যিনি গণতন্ত্রের মাতা, যিনি গণতন্ত্রের জন্য দীর্ঘদিন লড়াই করেছেন, সংগ্রাম করেছেন সেই বেগম খালেদা জিয়াকে অন্ধকার কারাগারে বন্দি রেখেছে। তিনি এখন প্রতিটি মুহূর্ত অপেক্ষা করছেন কবে বাংলাদেশে গণতন্ত্রের পতাকা উড়বে’।

গণতন্ত্রকে আবার ফিরিয়ে আনতে হলে কঠোর আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে এমন মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘বর্তমান সরকার জনগণকে নির্যাতন নিপীড়ন করে ক্ষমতায় আছে। তাই অতীত ইতিহাসের মতো এই সরকারের পতন হবে। দেশের জনগণ তাদেরকে ক্ষমতায় থাকতে দেবে না।’

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা পাবনা জেলা বিএনপির আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিবের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের হারুনুর রশীদ বলেন, ‘বাংলাদেশ এখন জংলিরা পরিচালনা করছে। এই দেশ এখন অনির্বাচিতদের হাতে। তাই একটি নির্বাচিত সরকারের হাতে দেশ পরিচালনার জন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে। দন্ডপ্রাপ্তদের মামলার বিষয়ে তিনি বলেন, লন্ডন থেকে তারেক রহমান মামলার বিষয়টি সরাসরি তদারকি করছেন, আপনাদের দু:চিন্তার কোন কারণ নেই। দেশে আইনের শাসন থাকলে মহামান্য হাইকোর্ট থেকে সবাই এই মামলা থেকে খালাস পাবেন। এছাড়াও দন্ডপ্রাপ্ত সকল নেতা-কর্মীর পরিবারের পাশে সহযোগীতার আশ্বাসও দেন তিনি’।

এ উপলক্ষ্যে আয়োজিত সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য আমিনুল ইসলাম, বগুড়া-৪ আসনের সংসদ সদস্য মোশাররফ হোসেন, ঠাকুরগাঁওয়ের সংসদ সদস্য জাহিদুর রহমান জাহিদ, সাবেক এমপি আব্দুল বারী সরদার, পাবনা জেলার সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল আল মামুন মাষ্টার, অ্যাডভোকেট মাসুদ খন্দকার, পাবনা জেলা বিএনপির আহবায়ক সদস্য মাহাম্মুউনবি স্বপন, পাবনা জেলা যুবদলের সভাপতি মোসাব্বির হোসেন সন্জু, সাধারন সম্পাদক ইলিয়াজআহাম্মেদ হিমেল রানা, সাংগঠনিক সম্পাদক মনির হেসেন প্রমুখ। সভায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপির নেতাকর্মীদের পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: