ঢাকা বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩৭ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে যৌন নির্যাতনের ঘটনা চেপে যেতে ছাত্রীকে শাসালেন শিক্ষকের স্ত্রী!

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১৪ জুলাই, ২০১৯
প্রতীকী ছবি

ঈশ্বরদীর ভাষা শহীদ বিদ্যানিকেতনের শিক্ষক মো. সিরাজুল ইসলাম সিরাজের বিরুদ্ধে বিদ্যালয়টির এক ছাত্রীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। তবে ঘটনা ধামাচাপা দিতে ওই স্কুল শিক্ষকের স্ত্রী নির্যাতনের শিকার স্কুলছাত্রীকে শাসিয়েছেন বলে জানা গেছে। ঘটনার সত্যতা জানতে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছেন তিনি। বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) সকালে এ ঘটনা ঘটে বলে ওই ছাত্রী অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার ছলিমপুর ইউনিয়নের জয়নগর ওয়াবদা গেট সংলগ্ন শিক্ষক সিরাজের বাড়িতে সকাল ৭টার দিকে প্রাইভেট পড়তে যায় নির্যাতনের শিকার নবম শ্রেণির ওই ছাত্রী। সে সময় শিক্ষক সিরাজুল তাকে যৌন নির্যাতন করেন। এসময় ছাত্রীর চিৎকারে শিক্ষকের স্ত্রী ছুটে আসেন এবং উল্টো ছাত্রীকে শাসিয়ে বলেন, ‘এ কথা যেন অন্য কেউ না জানে’। বাড়ি ফিরে ওই শিক্ষার্থী এসব ঘটনা তার মাকে জানায়। পরে ঘটনা জানাজানি হলে সিরাজুল ইসলাম সিরাজ স্থানীয়ভাবে বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা চালান। এ নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার জন্য ছাত্রীর পরিবারকে নানাভাবে হুমকিও দেওয়া হয়। এমনকি মামলা না করার জন্যও শাসানো হয়। ভয়ে শিক্ষার্থীর বাবা মামলা করতে পারেননি।

এরপর শনিবার (১৩ জুলাই) এ ঘটনার কথা স্কুলে ছড়িয়ে পড়লে বিচারের দাবিতে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনের ডাক দেয়। পরে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে বিচারের আশ্বাস দিলে শিক্ষার্থীরা আন্দোলন প্রত্যাহার করে নেয়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন শিক্ষার্থী জানায়, ‘ওই শিক্ষকের আচরণ ভালো ছিল না। আগেও তার বিরুদ্ধে ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত ও হয়রানি করার অভিযোগ উঠেছিল। কিন্তু প্রভাবশালী হওয়ায় তাকে বিচারের মুখোমুখি করা যায়নি।’

তবে কয়েকবার চেষ্টা করেও অভিযোগের বিষয়ে শিক্ষক সিরাজুলের কোনও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মুক্তার হোসেন বলেন, ‘বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভায় বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হবে। তদন্তের ভিত্তিতে অভিযোগ প্রমাণিত হলে অভিযুক্ত শিক্ষককে স্থায়ীভাবে বরখাস্ত করা হবে।’

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিম আক্তার বলেন, ‘বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় সিরাজুল ইসলাম সিরাজের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করেছি।’

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: