ঢাকা শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ০২:৫১ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীতে যুবদল নেতাদের গাড়িবহরে হামলা, আহত ৬

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: বুধবার, ১০ জুলাই, ২০১৯
দুর্বৃত্তদের হামলায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের ভাঙা গাড়ি। রেলগেট, ঈশ্বরদী, বুধবার, ১০ জুলাই। ছবি: দেবাশীষ সাহা রায়

ঈশ্বরদীতে যুবদলের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতাদের গাড়িবহরে স্থানীয় যুবলীগ নেতাকর্মীরা হামলা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় একটি গাড়ি ভাংচুরসহ যুবদলের ৬ নেতা-কর্মীরা আহত হয়েছে। বুধবার (১০ জুলাই) দুপুর দেড়টার দিকে শহরের থানার কাছে এ ঘটনা ঘটে।

হামলার পর ঘটনাস্থল থেকে বিএনপির দুইজন নেতাকর্মীকে উদ্ধার করে দলের অন্য সদস্যরা।

হামলায় আহতদের মধ্যে পাবনা জেলা যুবদলের সহ-সভাপতি মামুনুর রহমান কল্লোল লালন, পাবনা সদর থানা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মো. সজিব শেখ, জেলা যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক মো. সজিব হোসেন রয়েছেন।  আহতদের মধ্যে ৩ জনকে ঈশ্বরদীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

ঈশ্বরদী পৌর ছাত্রদলের সভাপতি আওয়াল কবির জানান, ‘শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলার মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্তনেতাদের পরিবারের খোঁজখবর নিতে বুধবার যুবদলের কেন্দ্রীয় নেতারা দু’টি মাইক্রোবাসে করে ঈশ্বরদীতে আসেন। এ সময় পাবনা জেলা যুবদলের নেতারা তাদের সঙ্গে ছিলেন। মাইক্রোবাস দু’টি থানা অতিক্রম করার সময় জেলা যুবদল নেতাদের বহনকারী মাইক্রোটি পিছনে পড়ে যায়। এ সময় ওই মাইক্রোবাসটিতে ভাংচুর ও যুবদল নেতাদের মারধর করে  যুবলীগের ২০-২৫ জন যুবক।’

পাবনা জেলা যুবদল সভাপতি মোসাব্বির হোসেন সঞ্জু অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকারি দলের ক্যাডাররা লাঠি, রড, পাইপ, ইট-পাটকেলসহ ওই গাড়িবহরে হামলা চালিয়েছে।’

এ ব্যাপারে ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মোকলেছুর রহমান মিন্টু বলেন, ‘ঈশ্বরদী বিএনপির অভ্যন্তরীণ কোন্দল পুরোনো। বিএনপির সিরাজ সরদার ও হাবিব গ্রুপের কোন্দলে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে।’

ঈশ্বরদী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দিন ফারুকী জানান, ‘ ঘটনার পরপরই তিনজনকে প্রত্যক্ষদর্শী হিসেবে জিজ্ঞাবাদের জন্য থানা আনা হয়েছে। হামলাকারীরা পালিয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত হাইসটি পুলিশ হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। কেউ কোনো অভিযোগ দায়ের করেনি বলে জানার ওসি।’

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666