ঢাকা মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীর বিএনপি নেতাকর্মীদের রায় নিয়ে যা বললেন মির্জা ফখরুল

নিজস্ব প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০১৯
ফাইল ছবি

প্রায় ২৫ বছর আগে  ঈশ্বরদীতে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ট্রেনে গুলিবর্ষণ ও বোমা হামলা মামলার রায় প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, এই রায় প্রমাণ করে বাংলাদেশে বিচারব্যবস্থার কোনো স্বাধীনতা নেই।

মামলাটির রায় বুধবার (৩ জুলাই) ঘোষণা করা হয়। রায়ে ৯ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ এবং ২৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আরও ১৩ জনকে ১০ বছর করে কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা সবাই বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদলের সাবেক ও বর্তমান নেতা-কর্মী।

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) আয়োজিত চিকিৎসক সমাবেশে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

রায় প্রসঙ্গে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘১৯৯৪ সালের একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি রায় দেওয়া হয়েছে। এই রায়ে জাতি বিস্মিত। এটা কোন ধরনের রায়? দুটো গুলির শব্দ হয়েছে। কারা করেছে, কে করেছে গুলি, সেটা বিতর্কিত। ৯ জনকে ফাঁসি দেওয়া হয়েছে। ২৫ জনকে যাবজ্জীবন। দেশে বিচারিক অরাজকতা চলছে। আমরা শুধু হতাশ নই, আমরা বিক্ষুব্ধ এই রায়ে।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চলমান চীন সফর প্রসঙ্গে বিএনপির মহাসচিব বলেন, তাঁরা খুব খুশি হতেন যদি রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধানের জন্য প্রধানমন্ত্রী চীনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বসে এই ইস্যুকে প্রাধান্য দিতেন। প্রধানমন্ত্রী মেগা প্রজেক্টের চুক্তি করতে গেছেন বলে অভিযোগ করেন মির্জা ফখরুল।

খালেদা জিয়ার আমলে দেশে সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা ছিল বলে দাবি করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতায় খালেদা জিয়ার অবদান রয়েছে। তিনি বিদেশি গণমাধ্যমকে দেশে আনার ব্যবস্থা করেছিলেন।

আওয়ামী লীগ সংবাদমাধ্যমের স্বাধীনতা হরণ করেছে বলে দাবি মির্জা ফখরুলের। তাঁর ভাষ্য, আওয়ামী লীগ বারবার গণতন্ত্র কেড়ে নিয়েছে। আর বিএনপি তা ফিরিয়ে দিয়েছে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666