ঢাকা বুধবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১৫ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীতে অসহায়ের জন্য ‘মানবতার দেয়াল’

মেহেদী হাসান তুষার | ঈশ্বরদীনিউজটোয়েন্টিফোর.নেট
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৩ জুন, ২০১৯
ভবনের বাইরের দেয়ালে সাজিয়ে রাখা হয়েছে কাপড়। নিজের প্রয়োজন মতো যে কেউ সেখান থেকে প্রয়োজনীয় কাপড় নিতে পারবেন। আমবাগান, ঈশ্বরদী, ২৩ জুন। ছবি: মিনহাজুল ইসলাম

হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের ঠিকমতো খাবার জুটে না। কিনতে পারেন না পোশাক। এসব মানুষের কথা ভেবে ঈশ্বরদীর আমবাগান যুব সমাজের উদ্যোগে যাত্রা শুরু করেছে ‘মানবতার দেয়াল’। এলাকার বিত্তশালী ও সামর্থ্যবান মানুষ তাদের নতুন-পুরোনো পোশাক এই দেয়ালে রেখে যাচ্ছেন।

রোববার (২৩ জুন) বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা, পৌর মহল্লার ৭ নম্বর ওয়ার্ড আমবাগান মিস্টারের মোড় এলাকার দিকে যেতেই বাঁ পাশে চোখে পড়বে একতলার পুরোনো একটি বাড়ি। বিশেষ কারণে বাড়িটি দৃষ্টি আকর্ষণ করল। ভবনের বাইরের দিকে ডান পাশের দেয়ালে সাজিয়ে রাখা হয়েছে কিছু পুরোনো কাপড়। সেখান থেকে নিজের প্রয়োজনমতো একজন কাপড় নিয়ে গেলেন। দেয়ালের নাম রাখা হয়েছে ‘মানবতার দেয়াল’।

এই ‘মানবতার দেয়াল’-এর উদ্যোক্তা মো. শামিম হোসেন। তিনি পেশায় চিত্রশিল্পী। ওই দেয়ালের কার্যক্রম সম্পর্কে তিনি বলেন, এর আগে ঈশ্বরদীতে একটি সংগঠন গড়ে তোলেন তিনি। সমমনা ১০ জন সদস্য আছেন সেখানে। নানা রকম সামাজিক কাজগুলো করে থাকেন তাঁরা। তিনি আরও বলেন, শুধু শহর নয়; গ্রাম-গঞ্জে অসংখ্য হতদরিদ্র মানুষ আছেন, যারা দুই বেলা দুমুঠো ভাতের জোগান দিতে হিমশিম খাচ্ছেন। নিজেরা পোশাক কিনে পরতে পারেন না। ছিন্নমূল মানুষগুলোর একই অবস্থা। এসব মানুষ তাদের প্রয়োজন মেটাতে দেয়ালে রাখা পোশাক নিয়ে প্রয়োজন মেটাতে পারবেন।

কাজের ধরন সম্পর্কে ঈশ্বরদী পৌর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও স্বেচ্চাসেবক আব্দুল্লাহ আল মামুন সোহাগ বলেন, এ সংগঠনের সদস্যরা বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে ঘুরে ঘুরে পোশাক সংগ্রহ করছেন। পুরোনো পোশাকগুলো লন্ড্রিতে ধোলাইয়ের পর তা বিতরণ করার উদ্যোগ রয়েছে সংগঠনটির। বর্তমানে এ এলাকায় ‘মানবতার দেয়াল’ নামে একটি পয়েন্ট রয়েছে। ভবিষ্যতে এই সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে।

৭ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন জনি বলেন, মানবতার দেয়াল উদ্যোগটি ভালো ও ঈশ্বরদী উপজেলাবাসীর জন্য নতুন প্ল্যাটফর্ম। সব বিত্তশালী ও সামর্থ্যবান মানুষের উচিত হতদরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষের কথা ভেবে ‘মানবতার দেয়াল’-এ নতুন-পুরোনো পোশাক রেখে যাওয়া। কারণ, একার পক্ষে এসব মানুষের জন্য শতভাগ সুবিধা নিশ্চিত করা সম্ভব হয় না অনেক সময়। কিন্তু এ ধরনের প্ল্যাটফর্ম মানুষ ও মানবতার জন্য ইতিবাচক কাজ করবে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: