ঢাকা শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০১:১১ পূর্বাহ্ন

ক্ষমা চেয়ে শিক্ষার্থীর টাকা ফেরত দিলেন ঈশ্বরদী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ

নিজস্ব প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ৬ মার্চ, ২০২০
আসলাম হোসেন। ছবি: ফেসবুক

অবশেষে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়ে ঈশ্বরদী গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে এসএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের নম্বর কম দেওয়ার হুমকি দিয়ে ১০০ টাকা করে চাঁদা আদায়ের টাকা ফেরত দিলেন অধ্যক্ষ ।

অভিযোগ আর বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশের পর বুধবার (০৪ মার্চ) বিকেলের দিকে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিম আক্তাররের কাছে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চান শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আসলাম হোসেন।

এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষক ও অভিভাবকদের সঙ্গে রিয়াজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, সাঁড়া ঝাউদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহমান, আবুল হোসেন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম রসূল ও দরগাবাজার উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

গেল বৃহস্পতিবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আসলাম হোসেন এসে ভবন নির্মাণ বাবদ প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে ১০০ টাকা করে চাঁদা দিতে হবে বলে ঘোষণা দেন। পরে শিক্ষার্থীরা বাড়িতে এসে জানালে ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠেন অভিভাবকরা। এ বিষয়ে অভিভাবকরা অধ্যক্ষের কাছে প্রতিবাদও জানান। কিন্তু তাতে কোনো লাভ হয়নি। যারা দিতে পারবে না তাদের ব্যবহারিক পরীক্ষায় কম নম্বর দেওয়া হবে বলে হুমকি দেন।

এছাড়াও পাঠোন্নয়ন পরীক্ষা, ফরম পূরণ ও প্রবেশপত্র বাবদ অতিরিক্ত টাকা আদায়, শিক্ষা সফরের নামে ছাত্রীদেরকে পিকনিকে বাধ্য করাসহ নানাভাবে ছাত্রীদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেয়াসহ নিয়মিত কমিটি না করে পছন্দের লোকজন নিয়ে বিদ্যালয়টিকে নিজ বাণিজ্যিক কেন্দ্রে পরিণত করারও অভিযোগ ছিল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ আসলাম হোসেনের বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিম আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিষয়টি মিটমাট হয়েছে । ভবিষ্যতে এ ধরনের আর কোনও ঘটনা ঘটবে না জানিয়ে ওই শিক্ষক তার অতীত ভুলের জন্য ক্ষমা চায়।’

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
%d bloggers like this: