ঢাকা সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৪৫ অপরাহ্ন

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প: নিরাপত্তা নিশ্চিতে দ্বিতীয় ইউনিটে ‘কোর ক্যাচার’ স্থাপন

ঈশ্বরদীনিউজ২৪.নেট, প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০১৯

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের (আরএনপিপি) দ্বিতীয় ইউনিটের স্বয়ংক্রিয় নিরাপত্তা ব্যবস্থার জন্য ‘কোর ক্যাচার’ স্থাপনের কাজ নির্ধারিত সময়ের চেয়ে এক মাস আগেই গত বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) থেকে শুরু করেছে প্রকল্প নির্মাণ কাজের প্রধান ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এএসই। শনিবার রাশিয়ার রসাটমের এ দেশীয় এজেন্সি থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

‘কোর ক্যাচার’ স্থাপন সম্পর্কে এএসই এর ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প নির্মাণের রাশিয়ান পরিচালক সের্গেই লাসতোচকিন জানান, এটি স্বয়ংক্রিয় নিরাপত্তা ব্যবস্থার অন্যতম মূল অংশ। যা প্রকল্পের দ্বিতীয় ইউনিট ভবনে স্থাপন করা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত এটিই হচ্ছে এই প্রকল্পে স্থাপিত সর্ববৃহৎ ডিভাইস। আমাদের প্রকৌশলীদের সমন্বিত প্রচেষ্টার ফলেই নির্ধারিত সময়ের পূর্বেই কাজটি শুরু করা সম্ভব হয়েছে। আর প্রকল্পের প্রথম ও দ্বিতীয় ইউনিটের নির্মাণকাজ নির্ধারিত শিডিউল অনুযায়ীই এগিয়ে চলছে।

রাশিয়ার রসাটমের এ দেশীয় এজেন্সি সূত্রমতে, রুশ বিশেষজ্ঞদের ডিজাইনকৃত ‘কোর ক্যাচার’ একটি অন্যন্য কোণাকৃতির ডিভাইস। যা রিয়্যাক্টর কোরের নিচে স্থাপন করা হয়ে থাকে। কোর ক্যাচারটিতে বিশেষ ধরনের পদার্থ থাকে। যা প্রয়োজনকালে ডিভাইসটি সকল গলিত কোর বস্তু ধারণ করে সম্পূর্ণভাবে আবদ্ধ করে ফেলবে। এর ফলে রেডিয়েশনের বাইরে আসার পথ রুদ্ধ হয়ে যাবে। এটি স্বয়ংক্রিয় নিরাপত্তা ব্যবস্থার একটি অংশ। তাই এর কার্যক্রম মানুষের ওপর নির্ভর করবে না।

সূত্র মতে আরো জানা যায়, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুত্ প্রকল্প প্রাকৃতিক নিয়ম অনুসরণ করেই কোর ক্যাচারটি কাজ করবে। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প সাইটের বৈশিষ্ট্যসমূহ বিবেচনা করেই কোর ক্যাচারটি ডিজাইন করা হয়েছে। উন্নত হাইড্রো-ডাইনামিক ও শক প্রতিরোধ গুণাবলীসম্পন্ন হওয়ায় এটি অধিকমাত্রায় ভূমিকম্পসহিষ্ণু। কোর ক্যাচারটিতে বন্যা প্রতিরোধ ব্যবস্থাও যুক্ত করা হয়েছে।

বাংলাদেশ অ্যাটমিক এনার্জি কমিশনের দেওয়া তথ্যমতে, রুশ আর্থিক ও কারিগরি সহায়তায় নির্মীয়মান রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে প্রতিটি ১২০০ মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতাসম্পন্ন দুটি ইউনিট থাকবে। সর্বাধুনিক ৩+ প্রজন্মের ভিভিইআর- ১২০০ রিয়্যাক্টর স্থাপন করা হচ্ছে ইউনিটগুলোতে। আর নিরাপত্তাকে সর্বাধিক প্রাধান্য দিয়েই প্রকল্পের কাজ চলছে। স্বয়ংক্রিয়ভাবে দুর্ঘটনা প্রতিরোধে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও ডিজাইনে নির্মিত কোর ক্যাচার স্থাপন করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, প্রকল্পের প্রথম ইউনিটে কোর ক্যাচার স্থাপনের কাজ শুরু হয় গত বছরের ১৮ আগস্ট।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
error: © স্বত্ব ঈশ্বরদী নিউজ টুয়েন্টিফোর