ঢাকা রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৮:২৮ পূর্বাহ্ন

পুনর্বাসনের দাবিতে ফের ঈশ্বরদীতে বিক্ষোভ

ঈশ্বরদীনিউজ২৪.নেট, প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত: বুধবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৯
আন্দোলনকারীরা পাকশী রেল বিভাগের ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তার কার্যালয় অবরোধ করে রাখেন।

ঈশ্বরদীর পাকশী রেলওয়ের জায়গায় অবৈধভাবে বসবাস কারী পরিবারের সদস্যরা পুনর্বাসনের দাবিতে ফের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছেন।

বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) কার্যালয় মাঠে এসব কর্মসূচি পালন করা হয়।

এ সময় বিক্ষোভ মিছিল বের করে রাস্তায় নেমে আসেন কয়েক হাজার নারী-পুরুষ ও শিক্ষার্থীরা। পরে তাঁরা পাকশী রেল বিভাগের ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তার কার্যালয় অবরোধ করে রাখেন। এতে পশ্চিম রেলের নির্বাহী হাকিম ও পাকশী রেল বিভাগের ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান তাঁদের দাবি-দাওয়া পর্যায়ক্রমে পূরণ করার আশ্বাস দিলে ঘেরাও কর্মসূচি শেষ করেন। এরপর পাকশী আমতলা মাঠে প্রতিবাদ সমাবেশ হয়। এতে আগামী ১৯ ডিসেম্বর ফের কর্মসূচি এবং আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য ঐক্যের ঘোষণা দেওয়া হয়।

পাকশী বাজার সমিতির সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও বাংলাদেশ উদীচীর ঈশ্বরদী উপজেলার শাখার সংগীতশিল্পী আনিকা শামা উপমার নেতৃত্বে এসব কর্মসুচি বাস্তবায়ন করা হয়। প্রায় দুই ঘন্টাব্যাপি অনুষ্ঠিত এসব কর্মসুচিতে বক্তব্য দেন, মুক্তিযোদ্ধা রফিকুল ইসলাম, পাকশী বাজারের ব্যবসায়ী স্বপন ও সিরুসহ অন্যরা।

বক্তারা বলেন, আমাদের কারোরই নিজস্ব কোনো জমি নেই, তাই পুনর্বাসন না করে উচ্ছেদ করা হলে আমাদের রাস্তায় দাঁড়ানো ছাড়া কোনো উপায় থাকবে না। তারা এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

গেল ২৬ নভেম্বর পাকশী রেল বিভাগের ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান রেল বিভাগের জায়গা ছেড়ে দেওয়ার জন্য আড়াই হাজার অবৈধ দখলকারীকে নোটিশ দেন।

নোটিশে বলা হয়, ‘নোটিশ প্রাপ্তির পনের দিনের মধ্যে অবৈধ দখল ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হচ্ছে। অন্যথায় অবৈধ স্থাপনা ভেঙে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অবকাঠামো ভাঙার বিপরীতে সরকারের যে ব্যয় হবে তাও দখলদারের কাছ থেকে আদায় করা হবে।’

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666