ঢাকা সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০২:৫২ পূর্বাহ্ন

পাবনা চিনিকলে আখ মাড়াই শুরু

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০১৯
ডোঙ্গায় আখ ফেলে মাড়াই মৌসুম শুরু করছেন পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ।

৮২ হাজার টন আখ মাড়াই করে ৬ হাজার ৫৬০ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে ঈশ্বরদীর কালিকাপুরে পাবনা চিনিকলের আখ মাড়াই কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) বিকেল ৫টার সময় ডোঙ্গায় আখ ফেলে চলতি মৌসুমের এই আখ মাড়াই কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ।

পাবনা সুগার মিলস লিমিটেড ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুস সেলিমের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাশক কবীর মাহমুদ বলেন, সরকার ভর্তুকি দিয়ে জনকল্যাণে রাষ্ট্রায়ত্ত চিনিকলে স্বাস্থ্যসম্মত চিনি উৎপাদন কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে। পাশাপাশি আখ চাষিদের স্বার্থ সংরক্ষণে ন্যায্যমূল্যে আখ ক্রয় এবং সময়মত আখের মূল্য পরিশোধ করছে।

এই চিনিকলে সহস্রাধিক মানুষের কর্মসংস্থান হয়েছে। এই শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখা প্রয়োজন। এ এজন্য লক্ষ্যমাত্রা পূরণে কৃষকদের উচিৎ চিনিকলে আখ সরবরাহ করা। বর্তমান সরকার পাবনাসহ রাষ্ট্রায়ত্ত সব চিনিকলে বহুমুখীকরণ প্রকল্প হাতে নিয়েছে। পর্যায়ক্রমে তা বাস্তবায়ন করা হবে। ফলে চিনিকলগুলো লাভজনক হয়ে উঠবে।

আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- উপজেল নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিহাব রায়হান, ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবীর, দাশুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বকুল সরদার, ঈশ্বরদী আখ চাষি সমিতির সভাপতি শাহজাহান আলী বাদশা।

 এতে মহাব্যবস্থাপক (অর্থ) ওয়াকার হোসেন, জিএম (প্রশাসন) সিদ্দিক আলী, জিএম (কারখানা) মাহমুদুল হক, জিএম (কৃষি) হুমায়ন কবীর, সিবিএ সভাপতি সাজেদুল ইসলাম শাহীন, সাধারণ সম্পাদক উজ্জল হোসেন ও আখচাষী আনসার আলী ডিলু উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে ২২তম আখ মাড়াই মৌসুম সফল করতে যাবতীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করে চিনিকল কর্তৃপক্ষ। কারখানার প্রয়োজনীয় মেরামতসহ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কাজ শেষ করা হয়।

মিলগেট ছাড়াও ৩৩টি আখ ক্রয় কেন্দ্রের ক্রয় কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে কেন্দ্রের আঙিনা প্রস্তুত ও ডিজিটাল ওজন মেশিন সংযোজন করা হয়েছে। জমিতে আখের জরিপ কাজ শেষে উৎপাদিত আখের পরিমাণ বিবেচনা করে ই-পূর্জি ও ই-গেজেটের মাধ্যমে কৃষকদের কাছ থেকে আখ ক্রয় করা হচ্ছে। মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে কৃষকদের আখের মূল্য পরিশোধ করা হবে।

পাবনা সুগার মিলস লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুস সেলিম জানান, চিনিকল এলাকার আখ চাষিদের প্রণোদনা দিতে ঋণ বিতরণ করা হয়। এই ঋণের টাকা কৃষক তাঁদের জমিতে আখ উৎপাদনে বীজ ও সার সংগ্রহ করেছেন এবং জমিতে সেচ দিয়েছেন। চিনিকলে কৃষকদের বিক্রয়লব্ধ আখের মূল্য থেকে এ ঋণের টাকা সমন্বয় করা হবে।

পাবনা চিনিকল এলাকায় চলতি মৌসুমে ৫ হাজার ১৯৫ একর জমিতে ১১ হাজার টন আখ উৎপাদিত হয়েছে। চিনিকলের পাঁচটি সাব-জোনের ৩৩টি সেন্টারের অধীন কৃষকদের পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন ও মানসম্পন্ন আখ চিনিকলে সরবরাহের জন্যে অনুরোধ জানিয়ে প্রচারণা চালানো হয়েছে।

এছাড়া অবৈধভাবে পাওয়ার ক্রাশারে গুড় উৎপাদনে আখ সরবরাহ না করার জন্যেও পোস্টার ও লিফলেটের মাধ্যমে প্রচারণা চালানো হয়েছে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
error: © স্বত্ব ঈশ্বরদী নিউজ টুয়েন্টিফোর