ঢাকা শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৪:১৮ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীর পদ্মার পানি বিপৎসীমার ওপরে

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ১ অক্টোবর, ২০১৯
পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্টে পদ্মা নদীর পানি দীর্ঘ ১৬ বছর পর বিপৎসীমা অতিক্রম করল। সর্বশেষ ২০০৩ সালে এই পয়েন্টে পানি বিপৎসীমা অতিক্রম করেছিল। পানি বৃদ্ধির ফলে নিচু এলাকায় পানিবন্দী হয়ে পড়েছেন চরাঞ্চলের মানুষ। হার্ডিঞ্জ ব্রিজ, পাকশী, ঈশ্বরদী, পাবনা, ১ অক্টোবর। ছবি: হাসান মাহমুদ

ঈশ্বরদীর পাকশী পদ্মা নদীর পানির উচ্চতা বিপৎসীমার ওপরে উঠে গেছে।

মঙ্গলবার (০১ অক্টোবর) বেলা ১২টায় হার্ডিঞ্জ সেতু পয়েন্টে পানির উচ্চতা বিপৎসীমা ১৪ দশমিক ২৫ সেন্টিমিটার অতিক্রম করেছে।

পাবনা পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। এর আগে সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা থেকে মঙ্গলবার বেলা ১২টা পর্যন্ত ১৬ ঘণ্টায় পানির উচ্চতা ১০ সেন্টিমিটার বাড়ে।

যেভাবে পানির উচ্চতা বাড়ছে, তাতে এবার ১৬ বছরের রেকর্ড ছাড়াতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন পাউবো কর্মকর্তারা।

পানি উন্নয়ন বোর্ড পাবনার নির্বাহী প্রকৌশলী জহুরুল ইসলাম বলেন, বেলা ১২টা পর্যন্ত পানির উচ্চতা বিপৎসীমা ১৪ দশমিক ২৫ সেন্টিমিটারের ওপরে পরিমাপ করা হয়েছে। এর আগে ২০০৩ সালে সর্বোচ্চ ১৪ দশমিক ২৮ সেন্টিমিটার পর্যন্ত পানির উচ্চতা বেড়েছিল। তারও আগে ১৯৯৮ সালে একবার পানির সর্বোচ্চ উচ্চতা পরিমাপ করা হয়েছিল ১৫ দশমিক ১৯ সেন্টিমিটার।

ভারি বৃষ্টিপাতের জেরে সৃষ্ট বন্যা থেকে ভারতের রাজ্য বিহারের রাজধানী পাটনাসহ আরো ১২ জেলাকে রক্ষার জন্য ফারাক্কা বাঁধের ১১৯টি গেটের সব খুলে দিয়েছে ভারত।

সোমবার ফারাক্কার সব গেট খুলে দেওয়ায় পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের একাংশ ও বাংলাদেশে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। মালদা জেলার ফুলহর, মহানন্দা ও কালিন্দী নদীতে পানি বাড়ছে। সেখানে একাধিক জায়গায় নদীর বাঁধ ভেঙে প্লাবিত হয়েছে বিস্তীর্ণ এলাকা। চরম বিপৎসীমার ওপর দিয়ে বইছে গঙ্গা ও ফুলহর।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
error: © স্বত্ব ঈশ্বরদী নিউজ টুয়েন্টিফোর