ঢাকা বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৫৪ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে নৌকাবাইচে লগি-বৈঠা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ২০

বার্তাকক্ষ
  • প্রকাশিত: শুক্রবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৯
নৌকাবাইচে লগি-বৈঠা নিয়ে আয়োজক ও স্থানীয় গ্রামবাসীর সংঘর্ষ হয়। এ সময় লাঠিসোঁটা হাতে নদীর ধার অবরোধ করে রাখেন এক পক্ষ।

ঈশ্বরদী উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের বাঁশেরবাদা কোল (গাঙে) নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায় আয়োজক ও স্থানীয় গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এসময় এলাকাজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে নৌকাবাইচের বিভিন্ন এলাকার আগত দর্শকসহ আয়োজক ও স্থানীয় জনসাধারণ মিলে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। প্রাথমিকভাবে তাদের পরিচয় জানা যায়নি।

জানা গেছে, উপজেলার পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান রিপন বিশ্বাসের উদ্যোগে শুক্রবার (১১ অক্টোবর) বিকেলে নৌকা বাইচ টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছিল। নৌকাবাইচ চলার মুহূর্তে গাঙের ধারে খেলার ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় কিছু যুবকদের সাথে আয়োজক কমিটির সদস্যদের সংঘর্ষ বাঁধে। সংঘর্ষ এক সময়ে ব্যাপক আকার ধারণ করলে মানুষ আতঙ্কিত হয়ে দৌড়ে পালাতে থাকেন। এক পর্যায়ে আয়োজক কমিটির সার্বিক তত্ত্বাবধানে থাকা বাবু বিশ্বাস লাঞ্ছিত হলে সংঘর্ষের মাত্রা আরো বেড়ে যায়। শুরু হয় লগি-বৈঠা নিয়ে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। পরে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং মঙ্গল, শান্ত, সন্টু ও বাবু নামে চারজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

ঈশ্বরদী ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পেয়ে থানা থেকে অতিরিক্ত পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিষয়টি নিয়ে আমাদের কাছে কেউ এখন পর্যন্ত কোন অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বিষয়টি নিয়ে ঈশ্বরদী উপজেলার পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও আয়োজক কমিটির প্রধান আসাদুজ্জামান রিপনের সাথে বারবার ফোনে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
error: © স্বত্ব ঈশ্বরদী নিউজ টুয়েন্টিফোর