ঢাকা রবিবার, ১৩ জুন ২০২১, ০৮:০৯ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীতে গড় পাসের হার ৭৩ দশমিক ৮২ শতাংশ ও জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১০১

আশরাফুল ইসলাম সবুজ, নির্বাহী সম্পাদক | ঈশ্বরদীনিউজটোয়েন্টিফোর.নেট
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯

রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ঈশ্বরদী উপজেলায় উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষায় এবার গড় পাস করেছে ৭৩ দশমিক ৮২ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১০১ জন শিক্ষার্থী।

ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এবারে গড়ে মোট ৩ হাজার ৩৭৩ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষা দিয়েছিল। এর মধ্যে পাস করেছে ২ হাজার ৫৬৪ জন। আর অকৃতকার্য শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৯০৯ জন।

ফলের তথ্য বিশ্লেষণ করতে গিয়ে দেখা যায়, এবার উচ্চ মাধ্যমিক শাখায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ১২৯ জন। পাশের হার ৭৩ দশমিক ২৮ শতাংশ। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ২ হাজার ২৯৩ জন, অকৃতকার্য হয়েছেন ৮৩৬ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৯৭ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ঈশ্বরদী সরকারী কলেজ থেকে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৮৮, মহিলা কলেজ ২, দাশুড়িয়া ডিগ্রি কলেজ ৩, সরকারি সাঁড়া মাড়োয়ারী মডেল স্কুল ত্র্যান্ড কলেজ ৩ ও মুলাডুলি কলেজ ১ জন শিক্ষার্থী। এ বছর শতভাগ পাশ করেছে বাঘইল স্কুল ত্র্যান্ড কলেজ, পরীক্ষার্থী ছিল তিনজন।

আলিম শাখায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ১২০ জন। পাশের হার ৮৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১০৪ জন, অকৃতকার্য হয়েছেন ১৬ জন। কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জিপিএ-৫ ও শতভাগ পাস নেই।

কারিগরি শাখায় মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২২৪ জন। পাশের হার ৭৪ দশমিক ৫৫ শতাংশ। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১৬৭ জন, অকৃতকার্য হয়েছেন ৫৭ জন। জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৪ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছেন গোপালপুর টেকনিক্যাল ত্র্যান্ড বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ থেকে ২ ও দাশুড়িয়া ডিগ্রী কলেজ (বি.এম) ২  জন শিক্ষার্থী। শতভাগ পাস করা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নেই।

এ বিষয়ে মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা সেলিম আক্তার বলেন, ‘এ বছর ফলের সূচকে বেশ কিছু ইতিবাচক লক্ষণ প্রকাশ পেয়েছে। পাসের হার বৃদ্ধি পেয়েছে।’

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666