ঢাকা বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৪০ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদীতে ইফতার মাহফিলে হামলা-ভাঙচুর

ঈশ্বরদীনিউজ২৪.নেট, প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত: রবিবার, ১২ মে, ২০১৯
ইফতার মাহফিলে হামলা-ভাঙচুর

 

মুরাদ হাসান: ঈশ্বরদী পৌর এলাকার ফতেমোহাম্মদপুর  হালিমের মোড় এলাকায় আজ রোববার (১২ মে) আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত অনুসারীরা হামলা চালিয়ে আহলে হাদিস সমর্থকদের মারধর ও বাড়ীঘর, দোকানপাট ভাংচুর করেছে।  খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

তবে আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত অনুসারীরা এ হামলার অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ইসলামের অপব্যাখ্যা দেয়ার কারণে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। 

আহলে হাদিস সমর্থক মাইনুদ্দীন আহমেদ বলেন,তাঁর নিজের বাড়িতে ইফতার মাহফিলের আয়োজন করেন। এ উপলক্ষে বিকাল থেকে বাড়িতে শুরু হয় ধর্মীয় আলোচনা, এতে অংশ নেন পাশ্ববর্তী লালপুর উপজেলার রামকান্দাপুর গ্রামের বেলায়েত হোসেন হুজুর। ইফতারের পাঁচ মিনিট আগে হঠাৎ করেই আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাত অনুসারী মাজাহার ইসলাম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি ক্বারী আবুল খায়ের রিজভীর দলবল নিয়ে বাড়িতে হামলা চালিয়ে বেলায়েত হুজুরকে মারধর করেন। আমাদের বাড়ি ও ফেক্সিলোডের দোকানে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে। আমরা প্রতিবাদ জানালে আমার বাবা হায়দার আলীসহ পরিবারের লোকজনকে মারধর করেন।

তিনি আরোও বলেন, এলাকার বাইরে থেকে হুজুর এনে ধর্মীয় আলোচনার আয়োজন করায় এই হামলা চালানো হয়েছে।

এ বিষয়ে মাজাহার ইসলাম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মুফতি ক্বারী আবুল খায়ের রিজভী বলেন, মাইনুদ্দীন আহমেদ তাঁর বাড়িতে জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত রয়েছে এমন লোকজনকে নিয়ে আলোচনা করছিলেন এবং তাঁরা ইসলাম সম্পর্কে  নানা অপব্যাখ্যা দেয়ার চেষ্টা করছিলেন। আমরা ইসলাম বিরোধী এসব কর্মকান্ডের প্রতিবাদ জানিয়েছি। এলাকার লোকজন মিছিল করে থানায় গিয়ে এসব ঘটনা থানার কর্মকর্তাদের অভিহিত করেছেন।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দীন ফারুকী জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
error: © স্বত্ব ঈশ্বরদী নিউজ টুয়েন্টিফোর