ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৪৩ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদী প্রেস ক্লাব থেকে জনকন্ঠের প্রতিনিধি তৌহিদ আক্তার পান্না বহিষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদন
  • প্রকাশিত: সোমবার, ৩ আগস্ট, ২০২০
তৌহিদ আক্তার পান্না। ফাইল ছবি

গঠনতন্ত্র বিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে ঈশ্বরদী প্রেস ক্লাব থেকে দৈনিক জনকন্ঠের প্রতিনিধি তৌহিদ আক্তার পান্নাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত ২৮ জুলাই প্রেসক্লাবের মাসিক সভায় তার বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়। প্রেসক্লাব সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাতেন সোমবার (০৩ আগস্ট) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

সাংবাদিকরা অভিযোগ করেন, তৌহিদ আক্তার পান্নার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দফতরে ভয়ভীতি দেখিয়ে চাঁদাবাজি করার অভিযোগ ছিল। এ বিষয়ে প্রেসক্লাব নেতারা তাকে একাধিকবার সতর্ক করেছেন। কিন্তু সে সতর্ক না হয়ে নানা অপকর্ম চালিয়ে যেতে থাকে। এজন্য গত ২৮ জুলাই প্রেসক্লাবের স্থায়ী সদস্য পদ থেকে আজীবন বহিষ্কারও করা হয়।

তারা আরও জানান, পান্না কথিত “উপজেলা প্রেসকাব ঈশ্বরদী” নামে একটি ভূঁইফোড় সংগঠন প্রতিষ্ঠা করে নিজেকে উক্ত প্রতিষ্ঠানের সভাপতি পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন স্থানে প্রচার-প্রপাগান্ডা চালিয়ে এই সংক্রান্ত খবর বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশ করেছে। যা বর্তমান কার্যনির্বাহী কমিটির গোচরীভূত হয়। এছাড়াও এর আগে বিভিন্ন সময়ে অনুমোদন ছাড়াই প্রেসকাবের বাইরে ব্যক্তিগত অফিসে বিচ্ছিন্নভাবে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে। এই বিষযটিও গঠনতন্ত্রের অনুচ্ছেদ-৩ এর ‘ঙ’ ধারার সাংগাঠনিক শৃংখলা ভঙ্গের অপরাধ। এ কারণে প্রেসক্লাব নেতারা জরুরি সাধারণ সভা ডাকেন। সভায় এ বিষয়ে বিভিন্ন অভিযোগুলো তুলে ধরা হয়। সেখানে প্রায় সকলে তার বিরুদ্ধে বহিষ্কারের প্রস্তাব তোলেন। এই প্রস্তাব সভায় সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়।

প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাতেন জানান, ঈশ্বরদী উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিক এবং প্রেসক্লাবের ভাবমূর্তি রক্ষার্থে তৌহিদ আক্তার পান্নার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ক্লাবের সদস্যরা তার বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে মাসিক সভায় নিন্দা জানিয়েছেন। বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত বিভিন্ন দফতরে লিখিতভাবে জানানো হবে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২০
 
themebaishwardin3435666