ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ১০:২১ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীতে চেক জালিয়াতি মামলা: জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত মৎস্যচাষি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২৫ অক্টোবর, ২০২০
হাবিব। ফাইল ছবি

ঈশ্বরদীতে চেক জালিয়াতির মামলায় জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত মৎস্যচাষি হাবিবুর রহমান হাবিব ওরফে মৎস্য হাবিব গ্রেপ্তার হয়েছে।

রোববার (২৫ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার মুলাডুলি ইউনিয়নের আটঘরিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাঁকে ঈশ্বরদী থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

হাবিব ওই গ্রামের আলহাজ্ব আবুল কাশেমের ছেলে এবং একটি মৎস্য খামারের মালিক। তিনি একটি চেক জালিয়াতি মামলায় ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী থাকায় গ্রেপ্তারের পর পাবনা জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

মামলার এজাহার সুত্রে জানা গেছে, হাবিব নিজ নামের মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক ঈশ্বরদী শাখা থেকে ৪০ লাখ টাকা উত্তোলনের জন্য ২০১৯ সালের ২১ আগস্ট তারিখে একটি চেক দেয় পাবনার আটঘরিয়া উপজেলার পারখিদিরপুর গ্রামের মনছের আলীর ছেলে রফিকুল ইসলামকে। যার নম্বর এমটিবি/সিডি-৩৮৩২৪৩৮, হিসাব নম্বর ৫০৮০২১১০০০০৯১। রফিকুল এই পরিমাণ টাকা মৎস্য হাবিবের কাছ পাওনা হিসেবে পেত। চেক পেয়ে রফিকুল ব্যাংকে এসে টাকা তাঁর একাউন্টে জমা করতে গেলে ব্যাংক অফিসার তাঁকে জানায়, চেকে উল্লেখিত টাকা  এই একাউন্ট নম্বরে নেই। এ ব্যাপারে মিউচ্যুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক শাখার ব্যবস্থাপকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তা সত্যতা স্বীকার করেন।

বাদী রফিকুল ইসলাম জানান, ব্যাংকে টাকা না পেয়ে হাবিবের সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু টাকা না পাওয়ায় গত ২ সেপ্টেম্বর লিগ্যাল নোটিশ পাঠানো হয়। এতেও তিনি কর্নপাত না করায় পাবনা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্টেট আদালতে হাবিবের বিরুদ্ধে চেক জালিয়াতির মামলা দায়ের করা হয়।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেখ নাসীর উদ্দীন বলেন, চেক জালিয়াতির মামলায় হাবিব ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী থাকায় তাঁকে গ্রেপ্তার করে পাবনা আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২০
 
themebaishwardin3435666