ঢাকা শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন

যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোয় মার্কেটে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১০

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১
গুলির ঘটনায় গ্রোসারি মার্কেটটির ভেতরে লোকজন আটকা পড়েন। ছবি: এএফপি

যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের বাউলডার নগরীর একটি গ্রোসারি মার্কেটে বন্দুকধারীর গুলিতে পুলিশের এক কর্মকর্তাসহ অন্তত ১০ ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

স্থানীয় সময় গতকাল সোমবার বেলা আড়াইটার দিকে নগরীর কিং শপার্স মার্কেট নামের বড় গ্রোসারি স্টোরে গুলির এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর পুরো এলাকা পুলিশ ঘিরে রাখে। পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

নগরীর পুলিশ জানিয়েছে, বন্দুকধারীকে গুরুতর আহত অবস্থায় গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশের সঙ্গে গুলিবিনিময়ে বন্দুকধারী আহত হয়েছেন বলে মনে করা হচ্ছে। স্থানীয় সময় গতকাল রাত ১০টা পর্যন্ত বন্দুকধারীর নাম–পরিচয় প্রকাশ করা হয়নি। বেলা ২টা ৪০ মিনিটের দিকে কিং শপার্স মার্কেটে বন্দুকধারী ঢোকেন। তারপর গুলি শুরু হয়।

বন্দুকধারী প্রায় এক ঘণ্টা গ্রোসারি মার্কেটটির ভেতরে ছিলেন। এই সময়ে তিনি উদাম শরীরে গুলি করে লোকজনকে হত্যা করেন। নিহত পুলিশ কর্মকর্তার নাম এরিখ টেলি (৬১) বলে জানানো হয়েছে।

নিহত অন্য লোকজনের নাম-পরিচয় এখনো প্রকাশ করেনি পুলিশ। তবে নিহত ব্যক্তিদের পরিবার ও স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে বলে জানানো হয়েছে। গুলির ঘটনায় তদন্ত চলছে বলে গতকাল রাতে জানানো হয়েছে।

বাউলডার নগরীর পুলিশ গতকাল রাতের সংবাদ সম্মেলনে জানায়, তদন্ত এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে।

শুরুতে এই গুলির ঘটনায় ছয় ব্যক্তির নিহত হওয়ার তথ্য জানিয়েছিল বিভিন্ন গণমাধ্যম। তবে গতকাল স্থানীয় সময় রাত ১০টার দিকে নগরীর পুলিশ সংবাদ সম্মেলনে জানায়, এই গুলির ঘটনায় মোট ১০ জন নিহত হয়েছেন।

স্থানীয় লোকজনের ভাষ্যের বরাত দিয়ে গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, জরুরি ফোন পাওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

২০ মিনিটের মাথায় স্থানীয় পুলিশ টুইট করে জানায়, গ্রোসারি স্টোরটিতে বন্দুকধারী রয়েছেন। তিনি গুলি ছুড়ছেন। পরে এলাকাটি এড়িয়ে চলার জন্য লোকজনকে সতর্ক করে পুলিশ।

গুলির ঘটনায় গ্রোসারি মার্কেটটির ভেতরে লোকজন আটকা পড়েন। কেউ কেউ ফেসবুক ও ইউটিউবে গুলির ঘটনা লাইভ প্রচার করতে থাকে।

কয়েক মিনিটের মধ্যে পুলিশ এলাকাটি ঘিরে ফেলে। এক ঘণ্টার বেশি সময়ের চেষ্টার পর বন্দুকধারীকে আহত অবস্থায় গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় পুলিশ। তার আগে বন্দুকধারীর সঙ্গে পুলিশের দফায় দফায় গুলিবিনিময় হয় বলে স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন।

গতকাল মধ্যরাতের কিছু আগে নগরীর পুলিশের সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এই হামলার উদ্দেশ্য এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

গুলির ঘটনাটি দ্রুত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে অবহিত করা হয়েছে। কেন্দ্রীয়, অঙ্গরাজ্য ও নগর কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে।

কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের গভর্নর জারেড পোলিস ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন। এই দুঃখজনক ঘটনার জন্য তিনি শোক প্রকাশ করেছেন। নিহত ব্যক্তিদের পরিবারের প্রতি তিনি সমবেদনা জানিয়েছেন।

গভর্নর বলেছেন, তদন্তের পর বিস্তারিত তথ্য জনগণকে জানানো হবে।

কলোরাডোয় গতকালের ঘটনার মাত্র এক সপ্তাহ আগে জর্জিয়ায় বন্দুকধারীর গুলিতে আট ব্যক্তি নিহত হয়েছিলেন। এই দুই হামলার মধ্যে কোনো যোগসূত্র নেই বলে এখন পর্যন্ত জানা গেছে। তবে যুক্তরাষ্ট্রে এমন অভ্যন্তরীণ হামলা হতে পারে বলে কয়েক মাস ধরেই সতর্ক করেছেন গোয়েন্দারা।

শেয়ার করুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৩ - ২০২১
 
themebaishwardin3435666
error: © স্বত্ব ঈশ্বরদী নিউজ টুয়েন্টিফোর